স্ট্যাডি ইন চায়না নিয়ে কর্মশালা

চট্টগ্রামের নেভাল এভিনিউতে অবস্থিত রোটারি স্কুলে রোটার‍্যাক্ট ক্লাব অব ইসলামাবাদের ২০১৯-২৯ বর্ষের প্রথম এবং ৬৫৪ তম রেগুলার মিটিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার এটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন রোটার‍্যাক্ট ডিস্ট্রিক্ট সেক্রেটারি পিপি মাইনুদ্দীন মামুন, রোটার‍্যাক্ট ক্লাব অব ইসলাবাদের পিপি ওমর ফারুক চৌধুরী মুহসিন এবং আইপিপি ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ মিশকাত। প্রেসিডেন্ট আবদুল মান্নান আসিফ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সেশন স্পিকার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রোটারি ক্লাব মেট্রোপলিটন চিটাগাং এর পিপি চায়না প্রবাসী ইঞ্জিনিয়ার আপন চৌধুরী।

এসময় ইঞ্জিনিয়ার আপন চৌধুরী বলেন, উচ্চশিক্ষা গ্রহণে ইচ্ছুক অধিকাংশ বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের প্রথম পছন্দ ইউরোপ, আমেরিকা কিংবা কানাডা। এরপর রয়েছে চায়না। আর বর্তমানে চায়নায় উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ অন্যান্য দেশের চেয়ে অনেক বেশী সহজ। কেননা চায়নায় বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে ফুল ফ্রী স্কলারশিপ। তার একটি হচ্ছে সিএসই তথা চায়না স্কলারশিপ কাউন্সিল।

তিনি বলেন, এই স্কলারশিপের আওতায় প্রতিবছর অধ্যয়ণরত বিদেশি শিক্ষার্থীদের প্রায় ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। যেটি পাওয়ার জন্য ৩.০০ থেকে ৩.৫০ সিজিপিএ অর্জন করতে হয়। আর অন্যটি হচ্ছে রোড এন্ড ব্যাল্ট। এটির আওতায় প্রতিবছর ৪০ হাজার টাকা স্কলারশিপ পাওয়া যায়। যেটির জন্য ন্যূনতম ২.৫০ সিজিপিএ অর্জন করতে হয়। কিন্তু চায়নায় কোন বিদেশি শিক্ষার্থী চাকুরির সুযোগ পায়না। চাকুরীরত অবস্থায় পুলিশের হাতে ধরা পড়লে তবে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয় এবং আর কখনও চায়না যাওয়ার সুযোগ মিলবে না। তবে যে কোম্পানিতে চাকুরি করে তার ম্যানাজার যদি শিক্ষার্থীর পক্ষে থাকে তবে পুলিশ কখনোই আটক করতে পারবে না।

তিনি আরও বলেন, চায়নায় ভালো ইংরেজি জানা ছাত্ররা শুধুমাত্র একটাই চাকুরীর সুযোগ পায়। সেটি হলো টিউশন। চায়নিজরা খুব ভালো বেতনে তাদের সন্তানের জন্য ইংরেজির গৃ্হশিক্ষক নিয়োগ করে থাকেন। তারা প্রতি মাসে একজন ইংরেজি গৃহশিক্ষককে ৫ হাজার ইউয়ান বেতন দিয়ে থাকেন৷ যা বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৬৫ হাজার টাকা। এছাড়াও যারা ইউরোপের কোন দেশ থেকে পিএইচডি করতে চান, তাদের জন্য চায়না থেকে ইউরোপ যাওয়া সহজ।

ইঞ্জিনিয়ার আপন চৌধুরী বলেন, মাস্টার্স ও পিএইচডি করতে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের ব্যাংক ব্যালান্স ও অন্যান্য খরচ চায়নায় বিশ্ববিদ্যালয়ের যে শিক্ষকের সুপারভাইজে হবে। একান্তই তার বিষয়। তাই তিনি ট্রাভেল এজেন্সির সাথে টাকা লেনদেনের সময় সতর্কতা অবলম্বনের এবং ভর্তিকালীন ভুয়া তথ্য না দেওয়ার পরামর্শ দেন।

এছাড়াও এতে আরও বক্তব্য রাখেন ক্লাবের পিপি ইঞ্জিনিয়ার ওমর ফারুক চৌধুরী মুহসিন এবং রোটার‍্যাক্ট ডিস্ট্রিক্ট সেক্রেটারি মাইনুদ্দীন মামুন।

এরপর বিগত ১৮ জুলাইয়ের নেলসন ম্যান্ডেলা ডে উদযাপন অবগত করেন ক্লাবের ইন্টান্যাশনাল সার্ভিস ডিরেক্টর মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন রা'দ এবং আগামী ৩০ জুলাই নগরীর সাফা আর্কেডে অনুষ্টিতব্য রাফি স্মৃতি আর্ট প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানান ক্লাবের কমিউনিটি সার্ভিস ডিরেক্টর মোসলেহ উদ্দিন বাপ্পু।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ