১৬ তম শিক্ষক নিবন্ধনের ফাইনাল শর্ট সাজেশন

  © টিডিসি ফটো

আর মাত্র তিনদিন পর পরীক্ষা। পরীক্ষার্থীদের কল্যাণে, তাদের অনুরোধে ৩৫তম বিসিএস (সাধারণ শিক্ষা) ক্যাডার প্রাপ্ত গাজী মিজানুর রহমান ১৬ তম শিক্ষক নিবন্ধনের ফাইনাল শর্ট সাজেশন লিখেছেন। এর আগেও তিনি বেশ কয়েকটি পরীক্ষার সাজেশন লিখেছেন পরীক্ষার্থীদের জন্যে।

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার প্রিলি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩০ আগস্ট। সেই হিসাবে আর খুব একটা বেশি সময় নেই হাতে। এই সাজেশনটি মূলত তাদের জন্য, যারা আগে নিবন্ধনের জন্য পড়েছে বা অল্প কিছু পড়েছে। যারা আগে কিছুই পড়েনি, তারা চাইলে এই সাজেশনটি এড়িয়ে যেতে পারেন। কারণ আগে কিছু পড়া না থাকলে মাত্র ২-৩দিন পড়ে পরীক্ষা পাশ করা প্রায় অসম্ভব। এখানে মূলত যারা আগে কিছু পড়েছে; এখন পরীক্ষার আগ মুহূর্তে কী পড়বে মানে কোন কোন টপিকগুলো বারবার পড়বে যেন পরীক্ষার হলে ভুল না করে সেই বিষয়ে কিছু সাজেশন ও টিপস দিতে চাই।

এখানে আগে বলে রাখি, নিবন্ধন পরীক্ষায় প্রিলি পাশ করতে পারলেই আপনি রিটেন দিতে পারবেন। যতটুকু জানি, নিবন্ধন পরীক্ষার ১০০ নাম্বারের প্রিলিতে সব মিলিয়ে ৪০ পেলেই প্রিলিতে পাশ ধরা হয়। তবে, আমার মতে, আপনার মিনিমাম ৫০ পাওয়া উচিত নিশ্চিত হওয়ার জন্য। নিবন্ধন পরীক্ষায় প্রশ্ন খুব একটা কঠিন হয় না। আবার, নিবন্ধনের প্রিলির নাম্বারও মূল পরীক্ষায় যোগ হয় না। আপনাকে রিটেনে ও ভাইভা বেশি নাম্বার পেতে হবে, তাহলে আপনি মেধা তালিকায় এগিয়ে থাকবেন এবং চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন। প্রিলির নাম্বার যেহেতু যোগ হয় না, সুতরাং আপনাকে সব পড়তে হবে না। শুধু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো বারবার পড়লে আপনি প্রিলি পাশ করতে পারবেন বলে আশা করা যায়।

সবার আগে নিবন্ধের সিলেবাস সম্বন্ধে কিছুটা ধারণা নেয়া যাক-

প্রিলির সিলেবাস ৪ ভাগে বিভক্ত:
১। বাংলা- ২৫
২। ইংরেজি- ২৫
৩। গণিত- ২৫
৪। সাধারণ জ্ঞান- ২৫

ধাপ ১: নিবন্ধন পরীক্ষার আগ মুহূর্তে আপনি প্রথম নিবন্ধে আসা বিগত সালের স্কুল ও কলেজ শাখার প্রশ্নগুলো ভালোভাবে পড়ে নিন। হাতে সময় বেশি না থাকে কেবল প্রশ্ন ও উত্তরগুলো রিডিং পড়ে নিন আর শুধু ম্যাথগুলোর সমাধান করুন খাতায় লিখে।

ধাপ ২: বিসিএস প্রিলির বিগত সালের প্রশ্ন সমাধান করুন, কেবল বাংলা, ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান ও গণিতের প্রশ্নগুলো। বাকি সাবজেক্টগুলো বাদ দিন। বিশেষ করে ৩৫তম-৪০তম পর্যন্ত প্রশ্নগুলো ভালোভাবে রিডিং পড়ুন উত্তরসহ।

এবার আসি নিবন্ধনের সিলেবাসের কোন কোন টপিক এখন পড়বেন-

বাংলা:
বাংলা এই অংশে মূলত ব্যাকরণ থেকে প্রশ্ন আসে লিটারেচার থেকে প্রশ্ন ১-২ টি থাকে সাধারণত। এই এখন লিটারেচার নতুন করে কিছু পরবেন না; আগে যা পড়েছেন তাই চলবে। তাহলে ব্যাকরণ থেকে কোন কোন টপিক গুলো পড়বেন?

যে টপিকগুলোর নাম বলছি তা ধরে ধরে পড়বেন।
* শুদ্ধ শব্দ। বাক্য শুদ্ধিকরণ এখন আর পড়ার দরকার নেই। এই টপিক থেকে ২-৩ পেতে পারে।
* সমার্থক/প্রতিশব্দ। এই টপিক থেকে ২-৩ পেতে পারেন।
* বিপরীত শব্দ। এখান থেকে ১-২ পেতে পারেন।
* বিরাম চিহ্ন ও এর ব্যবহার। এখন থেকে ১-২ পেতে পারেন।
* সমাস। ১-২ থাকে। (‘BCS Preliminary Analysis’ বা ‘প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ Analysis’ থেকে পড়ুন সহজে সমাস শেষ করতে।)
* সন্ধি। ১-২ থাকে। এখন শুধু বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা প্রশ্নগুলো পড়ুন।
* প্রকৃতি-প্রত্যয়। ১-২ থাকে। এখন শুধু বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা প্রশ্নগুলো পড়ুন।
* এক কথা প্রকাশ। ১-২ থাকে। এখন শুধু বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা প্রশ্নগুলো পড়ুন।
* কারক-বিভক্তি। ২-৩ থাকে। (প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ Analysis বই থেকে সহজে শেষ করতে পারবেন।)
* বাংলা ব্যাকরণের আলোচ্য ৪টি বিষয় পড়ুন ভালো করে। পড়া অল্প কিন্তু ১ থাকে সাধারণত এখন থেকে।
* বাগধারা। ১-২ থাকে। বিগত সালে বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা প্রশ্নগুলো পড়লেই হবে।
* এক কথায় প্রকাশ। ১-২ থাকে।
* পারিভাষিক শব্দ ১-২ থাকে।

ইংরেজি:
এই অংশের জন্য অনেকে ভয় পায়। ভয়ের কিছু নেই। এখান থেকে সহজেই নাম্বার তুলতে পারবেন নিচের কমন টপিকগুলো পড়লে:

* প্রথমে ভালোভাবে পড়ে ফেলুন Right Form of Verbs ও Subject-Verb Agreement. কারণ বিগত সালে প্রশ্ন Analysis করে দেখেছি আমরা এখন থেকে ৫-৭ টি প্রশ্ন থাকে গড়ে। এই টপিকগুলোর সাথে পড়বেন Causative Verbs ও Condition Sentence. এগুলো মূলত Right Form of Verbs ও Subject-Verb Agreement এর অংশ। এই টপিকগুলো খুব গোছানো আকারে ও সহজে মনে রাখতে পারবেন ‘BCS Preliminary Analysis’ বা ‘প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ Analysis’ থেকে।
* Preposition: ২-৩ থাকে।
* Phrases & Idioms. ২-৩ থাকে। সাথে One Word Substitutions পড়ুন। কারণ এটি Phrase & Idioms এর সাথে মিল আছে। তবে One Word Substitutions শুধু বিগত সালের বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা প্রশ্নগুলো পড়লেই হবে, এখন সব পড়ার দরকার নেই।
* Synonym ও Antonym. ২-৩ থাকে। শুধু বিগত সালের বিভিন্ন পরীক্ষায় আসায় প্রশ্নগুলো পড়লেই কমন পেয়ে যাবেন আশা করি।
* Identification of Parts of Speech. এখান থেকে ২-৩ থাকে। ‘BCS Preliminary Analysis’ বা ‘প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ Analysis’ থেকে সহজে পড়তে পারেন।
* Transformation of Sentence থেকে ৩-৪টি প্রশ্ন থাকে। যেমন Simple, Complex, Compound, Positive, Negative, Active থেকে Passive. আগে পড়া না থাকলে এসব এখন পড়বেন না। এখন শুধু Active থেকে Passive Voice টা রিভিউ দিন। ১-২ নম্বর কমন পেতে পারেন।
* বাংলা থেকে ইংরেজিতে অনুবাদ করার জন্য ২-৪ টি প্রশ্ন থাকে, এখন এসব না পড়তে যাওয়াই ভালো। কারণ এগুলো নিয়ম থেকে আসে হুবহু কমন পাওয়া কঠিন।

গণিত:
* বীজ গণিতের মান নির্ণয় থেকে সবচেয়ে বেশি প্রশ্ন আসে। ২-৪টি।
* লাভ-ক্ষতি (শতকরা)। ২-৩টি
* সুদ-কষা (শতকরা)। ১-২টি
* কাজ ও সময়। ১টি
* বয়স। ১টি
* উৎপাদক ১টি
* অনুপাত ১-২ টি
* লগ ১-২টি
* সূচক ১-টি
* ল.সা.গু ও গ.সা.গু ১-২ টি
* বৃত্ত ১-২ টি
* ত্রিভুজ ও চতুর্ভুজের কোণ নির্ণয় ১-৩ টি।
* ত্রিভুজ (সমকোণী, সমবাহু, সম-দ্বিবাহু, বিষম বাহু) ১-২টি
* বর্গক্ষেত্র, আয়তক্ষেত্র, রম্বস। (আর ট্রাপিজিয়াম ও ঘনকের শুধু সূত্র)
* সংখ্যা ও গড়। ১-২টি

সাধারণ জ্ঞান:
এই অংশে বাংলাদেশ + আন্তর্জাতিক + বিজ্ঞান+ ICT মিলিয়ে প্রশ্ন হয়। তবে বাংলাদেশ বিষয়াবলী থেকে প্রশ্ন থাকে ১০-১৪ টির মতো।
তাই এখন পড়ুন-
* বাংলাদেশের ভৌগোলিক বিষয়াবলী,
বাংলাদেশ ও জাতিসংঘ সম্পর্কিত প্রশ্ন।
* বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সংস্থায় বাংলাদেশের সদস্যপদ লাভ
* মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলন, মুজিবনগর সরকার।
* ৬ দফা, যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ১৯৬৯ এর গণ অভ্যুত্থান, ১৯৭০ এর নির্বাচন, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা।
* ইউনেস্কো স্বীকৃত বাংলাদেশের বিশ্ব ঐতিহ্য, ৭ ই মার্চের ভাষণ, ২১ ফেব্রুয়ারি ও সুন্দরবনের স্বীকৃতি।
* বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
* বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১
* বাংলাদেশের অর্থনীতির অগ্রগতি ও উন্নয়ন। যেমন GDP প্রবৃদ্ধি, মাথাপিছু আয়।
* প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রতিক সময়ে গুরুত্বপূর্ণ পুরস্কার ও উপাধি
* বাংলাদেশের দর্শনীয় ও ঐতিহাসিক স্থান ও স্থাপনের অবস্থান ও প্রতিষ্ঠা।
* বাংলা নববর্ষ সম্পর্কিত প্রশ্ন
* আন্তর্জাতিক সংস্থার সদর দপ্তর
* বিভিন্ন দেশের মুদ্রার না। শুধু বিগত সালে বিভিন্ন পরীক্ষায় যেসব দেশের মুদ্রার নাম এসেছে তা পড়ুন এখন।
* বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস। যে দিবসগুলো ভিন্ন পরীক্ষায় এসেছে তাতে বেশি জোর দিন।
* ক্রিকেট খেলা ও বিশকাপ ফুটবল ২০১৮ ও ২০২২।
* সাধারণ বিজ্ঞান থেকে কিছু কমন প্রশ্ন আসে; যেমন বিজ্ঞান নির্ণায়ক যন্ত্রের নাম, বিভিন্ন প্রকার কালচার (যেমন: এপি কালচার, পিসি কালচার), রোগ-ব্যাধি থেকে ১-২ টি কমন প্রশ্ন আসে।
* জলবায়ু ও বায়ুমণ্ডল।
* বাংলাদেশের প্রাচীন ইতিহাস ও মধ্যযুগের ইতিহাস। এই ক্ষেত্রে কিছু কমন প্রশ্ন থেকে ১-৩টি প্রশ্ন করা হয়।
* ICT থেকে ১-২ কমন প্রশ্ন আসে। যা এমনিতেই পারবেন আগে সামান্য ধারণা থাকলে।

বি.দ্র:
আসলে সাধারণ জ্ঞানের কনসেপ্ট অনেক বড়, তারপরও আমি এখানে ছোট করার চেষ্টা করেছি। এখানে টপিক বেশি মনে হলেও আসলে পড়া কম।

এখানে বলে রাখা ভালো। এই সাজেশনটি মূলত আমাদের ‘শিক্ষক নিবন্ধন Analysis’ বইয়ের জন্য তৈরিকৃত। বইটি ২০১৯ সালে বের হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কাজ পুরোপুরিভাবে শেষ করতে পারিনি বলে আমরা তা পাবলিশড করিনি। ইনশাল্লাহ ১৭তম নিবন্ধন পরীক্ষার আগে পাবলিশড হবে।

লেখক: ৩৫তম বিসিএস (সাধারণ শিক্ষা) ক্যাডার


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ