পলিটেকনিক ভর্তিতে বয়সসীমা রাখার পক্ষে আইডিইবি নেতারা

  © সংগৃহীত

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সাথে ইনস্টিটিউশন অফ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (আইডিইবি) প্রতিনিধিবৃন্দের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আজ মঙ্গলবার (৭ জুলাই) বিকালে হেয়ার রোডে মন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে নেতৃবৃন্দরা শিক্ষামন্ত্রী ও শিক্ষা উপমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশে কারিগরি শিক্ষায় যে যুগান্তকারী পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে তার প্রশংসা করেন।

পাশাপাশি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ভর্তির যোগ্যতা ও বয়স নিয়ে আলোচনা হয়। এসময় নেতৃবৃন্দ তাদের মতামত তুলে ধরে পলিটেকনিকে ভর্তির যোগ্যতা না কমানো ও বয়সসীমা রাখার বিষয়ে মতামত তুলে ধরেন। এসময় মন্ত্রী এ বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে তাদের আশ্বাস্ত করেন। এছাড়াও বৈঠকে বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের অবদান ও তাৎপর্য নিয়ে বিশদ আলোচনা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের নবনিযুক্ত সচিব মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান, ইনস্টিটিউশন অফ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের সভাপতি মোঃ সিরাজুল ইসলাম এবং ইন্সটিটিউশন অফ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাফর আলী সিকদার প্রমুখ।

এর আগে গত সপ্তাহে এক সভা শেষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছিলেন, পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ভর্তির ক্ষেত্রে কোনো রকমের বয়সের সীমাবদ্ধতা রাখা হবে না। তাছাড়া ওই সভায় ভর্তির ক্ষেত্রে ছেলেদের ন্যূনতম যোগ্যতা জিপিএ ৩ দশমিক ৫ থেকে কমিয়ে ২ দশমিক ৫, মেয়েদের ক্ষেত্রে জিপিএ ৩ থেকে কমিয়ে ২ দশমিক ২৫ করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। পাশাপাশি ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তি ফি এক হাজার ৮২৫ টাকা থেকে এক হাজার ৯০ টাকা করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন মন্ত্রী।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ