ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব, মহিলা পলিটেকনিকের শিক্ষক বরখাস্ত

চট্টগ্রাম মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব দেয়ায় ইনস্টিটিউটের শিক্ষক মামুন-অর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। নিজের চেম্বারে ডেকে নিয়ে ও মোবাইল ফোনে ছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাব দেন ওই। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করানোর হুমকি দিতেও দ্বিধা করেননি তিনি।

তদন্তে এসব অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বৃহস্পতিবার (৩১ জুলাই) শিক্ষক মামুন-অর রশিদকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সাথে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মোকদ্দমা রুজু করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করে।

সূত্র জানায়, ছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়েছেন চট্টগ্রাম মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের গার্মেন্টস ডিজাইন অ্যান্ড প্যাটার্ন মেকিং বিষয়ের জুনিয়র ইন্সট্রাক্টর মামুন-অর রশিদ। তিনি ষষ্ঠ পর্বের একজন ছাত্রীকে মোবাইলে মেসেজ ও চেম্বারে ডেকে নিয়ে অনৈতিক প্রস্তাব দেন। ছাত্রীকে বারবার কাছে পেতে চান এই শিক্ষক। এ ধরনের অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করানোর হুমকিও দেন তিনি।

এসব অভিযোগ এনে ভুক্তভোগী ছাত্রী গত ২২ জুলাই চট্টগ্রামের হালিশহর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে। যা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এছাড়া স্থানীয় সংসদ সদস্যকে মৌখিকভাবে বিষয়টি জানিয়েছে ভূক্তোভাগী ছাত্রী। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।

সূত্র আরও জানায়, ছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাব ও কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ছাত্রীকে ফেল করানোর হুমকি দেয়ার অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় চট্টগ্রাম মহিলা পলিটেকনিকের শিক্ষক মামুন-অর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) মোতাবেক তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সাথে শিক্ষকের বিরুদ্ধের বিভাগীয় মামলা রুজু করেছে মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ সুনীল চন্দ্র চৌধুরী জানান, প্রথমে স্থানীয় সংসদ সদস্যের কাছ থেকে বিষয়টি জানতে পারি। পরে বিষয়টি খতিয়ে দেখে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। ছাত্রীর ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে আপত্তিকর কথাবার্তা ও অনৈতিক প্রস্তাব দিয়েছিলেন শিক্ষক মামুন-অর রশিদ। পরে প্রতিবেদন অধিদপ্তরে পাঠিয়েছি। সে প্রেক্ষিতেই মামুন-অর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ