বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রমের কার্যক্রমে সহযোগিতার অনুরোধ ডিআইজির

বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রমের কার্যক্রমে সহযোগিতার অনুরোধ ডিআইজির
  © টিডিসি ফটো

করোনাকালে এবং মুজিব বর্ষকে সামনে রেখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চার তরুণের উদ্যোগে দেশব্যাপী চালু হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা’ নামক কার্যক্রম। এই কার্যক্রমের অধীনে দেশের বৃদ্ধাশ্রমগুলোতে তারা প্রবীণদের খাদ্য উপহার, চিকিৎসা সেবা প্রদান এবং বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আয়োজন করেছেন।

উদ্যোক্তারা হলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের অপূর্ব চক্রবর্তী, দীপম সাহা, জাদিদ ইমতিয়াজ আহমেদ এবং মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অর্ক সাহা।

শুরু থেকে সম্পূর্ণ নিজেদের অর্থায়নে এসব কাজ চালিয়েছেন তারা। কিন্তু বর্তমানে নিজেদের অর্থায়নে কার্যক্রম পরিচালনা করতে গিয়ে হিমসিম খাচ্ছেন। এ অবস্থায় তারা দেশবাসীর কাছে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে অনুরোধ জানিয়েছেন।

এক ভিডিও বার্তার মাধ্যমে দেশবাসীর কাছে সহযোগিতার আহবান জানিয়েছেন এই কার্যক্রমটির প্রধান উপদেষ্টা, পরামর্শক এবং সার্বিক তত্ত্বাবধায়ক পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমানও।

ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী যারা এই প্রক্রিয়াটির সাথে যুক্ত রয়েছে তাদের নিজস্ব কোন আয় নেই, নিজস্ব কোন অর্থ নেই। কিন্তু তাদের রয়েছে একটি অদম্য স্পৃহা, সদিচ্ছা এবং অবহেলিতদের প্রতি ভালোবাসা।

তিনি আরোও বলেন, ‘আমি আশা করছি তারা এই কার্যক্রম সফলভাবে সম্পন্ন করতে সক্ষম হবে। যারা ইতোমধ্যে তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি এবং একইসাথে যার যার অবস্থান থেকে তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু আনন্দ আশ্রম সেবা কার্যক্রম এ পর্যন্ত ছয়টি বৃদ্ধাশ্রমে সেবা প্রদান করেছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মস্থান গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর হাইশুর বৃদ্ধাশ্রম থেকে এ কার্যক্রমের যাত্রা শুরু হয়। পরবর্তীতে ফরিদপুর, রাজবাড়ী, সাতক্ষীরা, খুলনা এবং জামালপুরে কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে তারা।

ভিডিও


মন্তব্য