ধোনির রান আউটের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন ভারতীয় সমর্থকদের!

  © সংগৃহীত

চলতি ক্রিকেট বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি শক্তিশালী ভারত। ম্যাচের শেষ মুহুর্তে টান টান উত্তেজনা। জিততে হলে যখন ১০ বলে ২৫ করতে হবে ভারতকে, তখন উইকেটে ফিনিশার মহেন্দ্র সিং ধোনি। ফলে জয় বেশ কাছ থেকেই দেখছিলেন ভারতীয় সমর্থকরা।

তবে শেষ মুহুর্তে নিউজিল্যান্ড ফিল্ডার মার্টিন গাপটিলের দারুন থ্রোতে রান আউট হন ধোনি। এরপরই মূলত ম্যাচটি নিউজিল্যান্ডের দিকে চলে যায়। প্রথম সেমিফাইনালে ১৮ রানে জয়ের পর কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও ধোনির রান আউট হওয়াই ম্যাচ ঘুরিয়ে দিয়েছে বলে স্বীকার করেছে। তবে এখন এ আউটের বৈধতা নিয়ে বিতর্ক শুরু করেছেন ভারতীয় সমর্থকরা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও এবং ছবি প্রকাশের পর ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো দাবি করছেন, ধোনি লকি ফার্গুসনের যে বলে রান আউট হলেন সেটি বৈধ ছিল কি না। এছাড়া ওই বলটি বৈধ না হলে ফলটাও পাল্টে যেতে পারত বলে মনে করছেন ভারতীয় সমর্থকরা।

তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ নিয়ে রীতিমতো ঝড় বইয়ে দিয়েছেন ভারতের ক্রিকেটপ্রেমীরা। তুমুল সমালোচনা হচ্ছে আম্পায়ারদেরও। অবশ্য এবার অনেক ভুলই করেছেন আম্পায়াররা। তা নিয়ে সমালোচনাও হয়েছে অনেক।

ম্যাচের ৪৯তম ওভার তৃতীয় পাওয়ার প্লে চলায় নিয়ম অনুযায়ী ৩০ গজের বাইরে পাঁচজন ফিল্ডার থাকার কথা। কিন্তু ফার্গুসনের ওই ডেলিভারির ওই বলের আগে টিভিতে একটি গ্রাফিকে দেখানো হয়, নিউজিল্যান্ডের ছয়জন ফিল্ডার ৩০ গজের বাইরে। বাউন্ডারি সীমানায় ছয়জন ফিল্ডার রাখার সুবিধা থেকে ধোনিকে ওই বলে রান আউট হতে হয় ধোনিকে বলে তারা মনে করছেন।

আর নিয়ম অনুযায়ী ফার্গুসনের ডেলিভারিটি ‘নো বল’ হওয়ার কথা। তবে ‘নো বল’ হলেও নিয়মানুযায়ী ধোনি কিন্তু রান আউটই হতেন ধোনি। তবে ভারতীয় সমর্থকরা বলছেন, বলটি ‘নো’ হলে ঝুঁকি নিয়ে ধোনি দুই রান নেওয়ার চেষ্টা করতে না? কারণ পরের ডেলিভারিটি ‘ফ্রি হিট’ হতো। অবশ্য অনেকেই বলছেন, গ্রাফিকে ভুল দেখানো হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ