সংসদ টিভিতে নিউটনের দ্বিতীয় সূত্রের অদ্ভুত ব্যাখ্যা

‘‘বস্তুর ভরবেগের পরিবর্তনের হার তার উপর প্রযুক্ত বলের সমানুপাতিক এবং যেদিকে বল প্রয়োগ করা হয় ভরবেগের পরিবর্তনও ঘটে সেদিকে” বিজ্ঞানী নিউটনের সেই বিখ্যাত দ্বিতীয় সূত্রের এবার অদ্ভুত ব্যাখ্যা মিলল বাংলাদেশ সংসদ টিভিতে। ‘আমার ঘরে আমার স্কুল’ এর দশম শ্রেনীর বল অধ্যায়ের ক্লাসে ত্বরণের মান বের করতে গিয়ে ঘটলো এই বিপত্তি।

সংসদ টিভিতে প্রচারিত ওই ক্লাসে দেখা যায়, শিক্ষক ত্বরণের মান বের করতে a সমান লিখেন m/F (a হলো ত্বরণ, m হলো ভর আর F হলো বল)। অথচ নিউটনের দ্বিতীয় সূত্র অনুযায়ী m ভরটির একটি সুষম ত্বরণ হবে। সুতরাং a সমান হবে F/m। অর্থাৎ নিউটনের দ্বিতীয় সূত্র ব্যবহার কোন বস্তুর উপর প্রয়োগ করা বলকে ভর দিয়ে ভাগ করলে ওই বস্তুর ত্বরণ বের হবে।

কিন্তু সংসদ টিভির শিক্ষক করলেন তার উল্টোটা। তিনি ভরকে বস্তুর উপর প্রয়োগকৃত বল দিয়ে ভাগ করলেন। উত্তরও বের করে আনলেন।

ভিডিও থেকে সংগৃহীত

 

নিউটনের দ্বিতীয় সূত্রের এই অদ্ভুত ব্যাখ্যার ক্লাস প্রচারিত হওয়ার পর থেকে এই নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। অনেকেই বলছেন- ঘরবন্দি শিক্ষার্থীদের এই ক্লাসগুলো কি বার্তা দিচ্ছে তা সংশ্লিষ্টদের ভেবে দেখা উচিত। একইসঙ্গে সমালোচিত হচ্ছেন ওই ক্লাস নেয়ার শিক্ষকও। তবে অনেকে ওই ক্লাসের পরিচালককে দুষছেন।

করোনাভাইরাসের সংকটের কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় ঘরবন্দি শিক্ষার্থীদের সিলেবাস শেষ করতে ভিডিও লেকচারের মাধ্যমে পাঠদানের উদ্যোগ নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেনীর ভিডিও ক্লাসগুলো প্রস্তুত করছেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর।

এর আগে একই বিপত্তি ঘটে প্রাথমিকের ভিডিও ক্লাসে। সেখানে শিক্ষার্থীদের উদ্ভুত নিয়মে যোগ করা শেখানো হয়। যদিও সেটি ভুলবশতঃ উল্লেখ করে তদন্ত করে দেখবেন বলে জানিয়েছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

এদিকে সংসদ টিভিতে প্রচারিত ভিডিও ক্লাসগুলো শিক্ষকরা নেয়ার সময় আরেকজন পরিচালক উপস্থিত থাকেন বলে জানা গেছে। যিনি এই ধরণের ভুলগুলো শোধরে দিয়ে ঠিকভাবে ভিডিও ক্লাস ধারণ করার দায়িত্বে নিয়োজিত। উপস্থিত ক্লাস নেয়ার ক্ষেত্রে শিক্ষকের এই ধরণের ভুল হতে পারে। তবে পরিচালকের দায়িত্ব হলো এইগুলো শোধরে দেয়া। তিনি ঠিকভাবে দায়িত্ব পালন না করার কারণে এই ভুলগুলো থেকে যাচ্ছে। একইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের মধ্যে এই নিয়ে ভুল বার্তা যাচ্ছে বলে জানাচ্ছেন সংশ্লিষ্টরা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ