০৮ নভেম্বর ২০১৯, ১২:১৪

হাত নেই, পা দিয়েই ভবিষ্যৎ গড়ছেন মানিক

জন্ম থেকেই দুই হাত নেই। তাই হাতের কাজ অনেক সময় পা দিয়েই করেন মানিক রহমান। এবছর পা দিয়ে লিখেই জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা দিচ্ছে মানিক। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার সদর ইউনিয়নের চন্দ্রখানা গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে মানিক।

দুই হাত না থাকলেও নিজেকে পিছিয়ে রাখেনি মানিক। এবছর ফুলবাড়ী জছি মিঞা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। এরআগে ২০১৬ সালে জছি মিঞা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পিএসসিতে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েছেন। পড়ালেখার পাশাপাশি পা দিয়েই কম্পিউটার টাইপ, ইন্টারনেট ব্যবহারসহ বিভিন্ন বিষয়ে পারদর্শী হয়ে উঠেছেন মানিক। 

মানিক বললেন, আমার দুটো হাত না থাকলেও আল্লাহর রহমতে পিইসি পরীক্ষায় গোল্ডেন এ প্লাস ও ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছি। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন যেন জেএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন এ প্লাস পাই। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার স্বপ্ন তার।

ফুলবাড়ী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় (পাইলট) স্কুলের শিক্ষক কানাই লাল সেন জানান, মানিক রহমান প্রতিবন্ধী হয়েও অন্য শিক্ষার্থীদের মতোই প্রতিটি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। বেঞ্চে বসে পরীক্ষা দিতে অসুবিধা হওয়ায় তার জন্য চৌকির ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং বাড়তি ৩০ মিনিট দেওয়াসহ সকল সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে।