ভুল প্রশ্নে জেএসসির ইংরেজি পরীক্ষা

  © ফাইল ফটো

ভুল সেটে ঢাকার তিনটি কেন্দ্রে জেএসসির ইংরেজি পরীক্ষা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে । উত্তরার ‍উদয়ন স্কুলে দুটি সেটে পরীক্ষা হয়েছে। কেউ দিয়েছে সেট ১ এ আবার কেউ সেট ২-এ। আর ইংরেজি প্রশ্নেও ভুল থাকায় বিপাকে পড়েছে লাখ লাখ পরীক্ষার্থী।

কয়েকজন শিক্ষক ও পরীক্ষার্থী জানান, ইংরেজি পরীক্ষার ৬ নং প্রশ্নেও দুটি ভুল ছিল। প্রশ্নের এ দুটি ভুলের জন্য বিভ্রান্ত হয়েছে কয়েক লাখ শিক্ষার্থী। তারা জানিয়েছেন এই দুটি ভুলের জন্য পরীক্ষার্থীরা কমপক্ষে দুই নম্বর থেকে বঞ্চিত হবেন।

জানা যায়, প্রশ্নপত্র বিতরণের নিয়মানুযায়ী ডিসি অফিস থেকে এডিসি (শিক্ষা) সব উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের কাছে একটি করে এসএমএস পাঠানা। ওই এসএমএসটি মূলত শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানের। এসএমএসটিতে বলা থাকে কোন সেটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরে ওই এসএমএসটি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে চলে যায়। শিক্ষা কর্মকর্তা সব কেন্দ্র সচিবের কাছে এসএমএসটি ফরোয়ার্ড করেন। এরপরও ভুল হলে তা বোর্ডকে জানাতে হয়।

সোমবার ইংরেজি পরীক্ষার আগে সেট -২ দিয়ে পরীক্ষা নেয়ার আদেশ দেয়া হয় এসএমএসের মাধ্যমে।  কিন্তু রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনস উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ কেন্দ্রে সেট ১ এ পরীক্ষা নেয়। ভুল হলেও রাত সাড়ে নয়টা পর্যন্ত বোর্ড কর্তৃপক্ষকে জানায়নি কেন্দ্র সচিব। ভুলের বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বিটিএ) সাধারণ সম্পাদক কাওছার আলী শেখ।

অপরদিকে, রাজধানীর শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনী উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে সেট ১ এ পরীক্ষা নিয়েছে। একইভাবে উত্তরার মোল্লারটেক উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রেও  সেট-১ এ জেএসসি পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেয়া হয়েছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. আবুল বাশার সাংবাদিকদের জানান, যেসব কেন্দ্র ভুল সেটে পরীক্ষা নিয়ে আমাদেরকে জানিয়েছে সেসব কেন্দ্রের পরীক্ষার্থীদের কোনও ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে না। কারণ, এ বিষয়ে বোর্ডের একটা বিধান আছে। ভুল সেটে পরীক্ষা মাঝে মাঝে হয়। তাই এর একটা সমাধানও আছে বোর্ডের হাতে। সমাধান হলেও যেসব কেন্দ্র ভুল সেটে পরীক্ষা নিয়ে ভুলটা বুঝতে পেরে বোর্ডকে জানিয়েছে সেসব শিক্ষার্থীদের খাতা সেট ১ প্রশ্ন অনুসারেই মূল্যায়ন করা হবে। খাতা বিতরণের সময় পরীক্ষকদের বিষয়টি জানিয়ে দেয়া হবে।

জানা যায়, সোমবার ২ নং সেটে অনুষ্ঠিত ইংরেজি প্রশ্নপত্রের ৬ নং প্রশ্নে দুটি শূন্যস্থানে ভুল রয়েছে। একটি প্রিপজিশনের অবস্থান ঠিক না থাকায় এবং অপর একটি প্রিপজিশন মূদ্রণ না হওয়ায় বিভ্রান্তিতে পড়ে লাখ লাখ শিক্ষার্থী।  ভিকারুননিসাসহ রাজধানীর কয়েকটি স্কুলের শিক্ষকরা ভুলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ