করোনায় বিপাকে পড়া শিক্ষার্থীদের জন্য ‘সংকটকালীন শিক্ষাবৃত্তি’

  © প্রতীকী ছবি

করোনাভাইরাসের প্রভাবে অনেকের মতো আর্থিক সংকটে পড়েছেন শিক্ষার্থীরাও। তাদের অনেকের নিজেদের আয়ে পড়াশোনার খরচ চললেও সে উৎস এখন বন্ধ। এমন বিপাকে পড়া অন্তত ১৫০ শিক্ষার্থীর পাশে দাঁড়িয়েছেন গবেষক ইমরান মাহফুজ এবং সাংবাদিক ইয়াসির আরাফাত।

শিক্ষার্থীদের জন্য তাদের উদ্যোগে দেওয়া হয়েছে ‘সংকটকালীন শিক্ষাবৃত্তি’। বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মেধাবী ও দরিদ্র শিক্ষার্থীদেরকে এ বৃত্তি দেওয়া হচ্ছে। তবে বৃত্তি পাচ্ছেন যারা, তাঁদের নাম-পরিচয় গোপন রাখা হচ্ছে।

বৃত্তি পাওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে টিউশনি এবং পারিবারিক ব্যবসা বন্ধ। তার ওপর কিডনির রোগী আমি । এমন সময় বৃত্তিটি অনেক কাজে এসেছে। এটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এমন উদ্যোগ আরও নেওয়া গেলে অনেকের উপকার হবে।’

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্ব বিভাগের এক শিক্ষার্থী বললেন, ‘এই বৃত্তির কারণে আমার পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদেরও উপকার হয়েছে। সংকটের সময় আমার জন্য একটা বড় সাপোর্ট এই বৃত্তি।’

এ উদ্যোগ সম্পর্কে সংকটকালীন শিক্ষাবৃত্তির পরিচালক ইমরান মাহফুজ বলেন, ‘বন্ধু ইয়াসির আরাফাতের সঙ্গে এ উদ্যোগটা নিলাম। কারণ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় অনেক মেধাবী শিক্ষার্থীর আয়ের পথও বন্ধ। এই কঠিন মুহূর্তে তাদের পাশে দাঁড়ানো জরুরি মনে করেছি।’

তিনটি ধাপে শিক্ষার্থীদের বিকাশ নম্বরে এ টাকা পাঠানো হয়েছে। উদ্যোক্তারা আশা করেন, সমাজের বিত্তশালীরা এগিয়ে এলে আরও বড় পরিসরে অসহায় শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে পারবেন তারা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ