লক্ষ্মীপুরে নীল স্কলারশিপ বৃত্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

  © টিডিসি ফটো

নীল মানবাধিকার উন্নয়ন সংস্থার সহযোগী প্রতিষ্ঠান নীল স্কলারশিপ লক্ষ্মীপুরের বৃত্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। আজ রোববার (০৯ ফেব্রুয়ারি) জেলার চন্দ্রগঞ্জ নিউ মার্কেটে প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয়ে এ ফল ঘোষণা করা হয়।

২০১৮ সালে প্রথম বৃত্তি পরীক্ষায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫০০’শ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। গত বছর ২০১৯ সালে লক্ষ্মীপুর এবং নোয়াখালী জেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় ৩০০০ হাজার শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ নেন। এর মধ্য থেকে ৪৫ জনকে ট্যালেন্টপুল, ১১৩ জনকে দ্বিতীয় গ্রেডে এবং ৩৪৫ জন শিক্ষার্থীকে সাধারণ গ্রেডে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নীল মানবাধিকার উন্নয়ন সংস্থার চেয়ারম্যান এবং চন্দ্রগঞ্জ নিউমার্কেটের সভাপতি মাওলানা মো. আব্দুল কুদ্দুস বলেন, আমরা দ্রুত সময়ের মাঝে ফল প্রকাশ করতে পেরেছি। এতে আমরা খুবই আনন্দিত। পরীক্ষা সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন ও ফল প্রকাশ দ্রুত হওয়ায় তিনি শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও অভিভাবকদের সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের মেধা ও নৈতিকতার সমন্বয় ঘটানোর জন্যই এ প্রতিষ্ঠানটির আবির্ভাব। নোয়াখালী এবং লক্ষ্মীপুরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ পরীক্ষা গত ২ দুই বছর থেকে অংশ নিচ্ছেন। দেশে শিক্ষিত লোকের অভাব নেই, তবে সুশিক্ষিত মানুষের খুব অভাব। নীল মানবাধিকার উন্নয়ন সংস্থা সেই সুশিক্ষিত মানুষ গঠনে কাজ করছে।

এই সময় অনুষ্ঠানের প্রধান পরিচালক ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সমাজ সংস্কারক মিজান মল্লিক। তিনি বলেন, আমরা আশা করবো আগামী পরীক্ষাগুলোতে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ আরও বাড়বে। এতে করে যোগ্য শিক্ষার্থী বিবেচনায় আর প্রতিযোগিতা বাড়বে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, নীল মানবাধিকার উন্নয়ন সংস্থা পরীক্ষা সচিব ও ব্যতিক্রম গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. কামরুল হাসান, সদস্য দেলোয়ার হোসেন, আব্দুল ছাত্তার ও সবুজ বাংলা ব্লাড ব্যাংকের তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মীর মনিরসহ বিভিন্ন স্কুল কলেজের প্রধান শিক্ষক এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, নীল মানবাধিকার উন্নয়ন সংস্থা বৃত্তি প্রদান ছাড়াও শিক্ষার্থীদের মাঝে বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে থাকে। এককালীন বৃত্তি প্রদান, গরীব মেধাবী ছাত্র সহায়তা, ব্লাড গ্রুপিং, ফ্রি চিকিৎসা প্রদান, উচ্চশিক্ষায় আগ্রহী করার জন্য ক্যারিয়ার গাইড লাইন এসবের মধ্যে অন্যতম।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ