জেএসসির ফলাফলে ঘুরে দাঁড়িয়েছে যশোর বোর্ড

  © ফাইল ফটো

জুনিয়র মাধ্যমিক পরীক্ষার (জেএসসি) ফলাফলে গত দু’বছরের বিপর্যয়কে পেছনে ফেলে ঘুরে দাঁড়িয়েছে যশোর শিক্ষাবোর্ড। গত বছরের তুলনায় পাসের হার বেড়েছে প্রায় ৭ শতাংশ। আর জিপিএ-৫ বেড়েছে আড়াই হাজার।

গত দু’বছর গণিতে ফল বিপর্যয়ের কারণে ধস নেমেছিল পাসের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে। এ বছর জেএসসিতে যশোর বোর্ডে পাসের হার ৯১ দশমিক ০৮ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৯ হাজার ৭৫৫। গত বছর পাসের হার ছিল ৮৪ দশমিক ৬১ শতাংশ এবং ৭ হাজার ২৫৬ জন জিপিএ-৫ পেয়েছিল।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে প্রকাশিত আনুষ্ঠানিক ফলাফলে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের প্রকাশিত ফলাফল অনুযায়ী, চলতি বছর ২ লাখ ৩৩ হাজার ৮২৯ জন শিক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। এদের মধ্যে ছাত্র ১ লাখ ১২ হাজার ১৪১ ও ছাত্রী ১ লাখ ২১ হাজার ৬৮৮। এরমধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ২ লাখ ১২ হাজার ৯৭৬ জন। এর মধ্যে ছাত্র ১ লাখ ৬৯৬ ও ছাত্রী ১ লাখ ১২ হাজার ২৮০ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ হাজার ৭৫৫ জন ছাত্রছাত্রী। পাসের হার ৯১ দশমিক ০৮।

গত বছর (২০১৮) ২ লাখ ৪২ হাজার ৭১১ জন শিক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। এদের মধ্যে ছাত্র ছিল ১ লাখ ১৫ হাজার ৭২৯ ও ছাত্রী ১ লাখ ২৬ হাজার ৯৮২। এরমধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছিল ১ লাখ ৯৯ হাজার ৫৩৬ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৭ হাজার ২৫৬ জন। পাসের হার ছিল ৮৪ দশমিক ৬১।

২০১৭ এই বোর্ড থেকে ২ লাখ ৯ হাজার ৫১৫ জন শিক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। এদের মধ্যে ছাত্র ছিল ১ লাখ ১ হাজার ২৬৫ ও ছাত্রী ১ লাখ ৮ হাজার ২৫০। এরমধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছিল ১ লাখ ৭৪ হাজার ৭৭৬ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৪ হাজার ৬১২ জন। পাসের হার ছিল ৮৩ দশমিক ৪২।

আর ২০১৬ সালে এই বোর্ড থেকে ২ লাখ ১৩ হাজার ৩৪০ জন শিক্ষার্থী জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। এদের মধ্যে ছাত্র ১ লাখ ৩ হাজার ১৬৬ ও ছাত্রী ১ লাখ ১০ হাজার ১৭৪। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছিল ২ লাখ ৩ হাজার ৪২৮ জন। উত্তীর্ণেদের মধ্যে ছাত্র ৯৭ হাজার ৮৮১ ও ছাত্রী ১ লাখ ৫ হাজার ৫৪৭ জন। এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ২২ হাজার ৩ জন। পাসের হার ছিল ৯৫ দশমিক ৩৫।

ফলাফল অনুযায়ী, ২০১৭ ও ১৮ সালের তুলনায় এবার পাসের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্তি বেড়েছে। যদিও তা ২০১৬ সালের তুলনায় পিছিয়ে।

জেএসসি’র ফলাফল সম্পর্কে যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান, যশোর বোর্ডের সার্বিক ফলাফলে তারা সন্তুষ্ট। এবছর ছাত্রদের চেয়ে বেশিসংখ্যক ছাত্রী জেএসসিতে অবতীর্ণ হয়েছিল। আবার ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের ফলাফলও ভাল। তাদের পাসের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্তিও বেশি।

এদিকে, বোর্ডের ফলাফলে দেখা গেছে, এবার বোর্ডের ৪৯৬টি স্কুল থেকে শতভাগ শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে। গতবছর এই সংখ্যা ছিল ২৭৬। আর ২০১৭ এই সংখ্যা ছিল ২৮১। যদিও ২০১৬ সালে এ সংখ্যা ছিল ৯৯৯। আর গতবছর ১টি বিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষার্থীই পাস করতে পারেনি। ২০১৭ বছর এ সংখ্যা ছিল ৯। যদিও এবার শূন্য ভাগ পাসের হারের কোনো স্কুল নেই।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ