বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবিতে মানববন্ধন

  © সংগৃহীত

সরকারি বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবিতে নগরীতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। আজ শনিবার (১১ জুলাই) সদর রোডে মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্ত টাউন হলের সামনের সড়কে এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন হয়।

বরিশাল জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজিব হোসেন খানের সঞ্চলনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সরকারি বরিশাল কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি ও বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম জাহাঙ্গীর।

জাহাঙ্গীর তার বক্তব্যে বলেন, বরিশাল জেলা প্রশাসক কার স্বার্থে ‘সরকারি বরিশাল কলেজের’ নাম পরিবর্তন করে ‘মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের’ নামে নামকরণ করার প্রস্তাব দিয়েছেন তা তিনি ভালো করে বলতে পারেন। সরকারি বরিশাল কলেজের নামের সঙ্গে বরিশালের নামের স্মৃতি জড়িয়ে আছে। এখানে যতই প্রভাব দেখানো হোক না কেন সরকারি বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন করতে দেবে না কলেজের শিক্ষার্থীরা।

হুশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, যদি নাম পরিবর্তন করা হয় তাহলে বরিশালের ছাত্রসমাজের মাঝে ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটবে। তা জেলা প্রশাসক সামাল দিতে পারবেন না বলে মন্তব্য করেন বরিশাল কলেজের সাবেক এই ছাত্রনেতা।

তিনি বলেন, আমরা অশ্বিনী কুমার দত্তকে খাটো করে দেখি না। যদি এখানে তার নামের স্মৃতি রাখতে হয় তাহলে ছাত্র হোস্টেল, জাদুঘর নির্মাণ করে তার নামকরনের পরামর্শ দেন তিনি।

বরিশাল কলেজের সাবেক এজিএস হাফিজ আহমেদ বাবলু বলেন, সরকারী বরিশাল কলেজ প্রতিষ্ঠাকালে অশ্বিনী কুমার দত্তের কোনো অবদান নেই। তারা সেই সময় এই সম্পত্তি বিক্রি করে গেছেন।

তিনি বলেন, এই কলেজের জমি ক্রয় করার পেছনে যারা সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত, অধ্যাপক মোজাম্মেল হক, গোলাম মাওলাসহ বিভিন্ন গুনীজন। এই শিক্ষানুরাগীদের অনুদান ও কলেজের নিজস্ব অর্থায়নে একটি নাইট কলেজ হিসেবে শুরু হয়েছিল বরিশাল কলেজ। তাই কারো নামে এই কলেজের নাম পরিবর্তন হতে পারে না।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে একাত্মতা প্রকাশ করে কলেজের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীরা বক্তব্যে রাখেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ‘সরকারি বরিশাল কলেজের’ নাম পরিবর্তন করে ‘মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের’ নামে নামকরণ করার প্রস্তাব দিয়ে সংশ্লিষ্টদের চিঠি দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ