দিল্লিতে ধর্মীয় সহিংসতার প্রতিবাদে একাই দাঁড়ালেন নজরুল কলেজ ছাত্র

  © টিডিসি ফটো

দিল্লিতে ধর্মীয় সহিংসতার প্রতিবাদ জানিয়ে একাই দাঁড়িয়েছেন রাজধানীর কবি নজরুল সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী আতিফ অনিক। বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কলেজের মূল ফটকে প্ল্যাকার্ড হাতে একক প্রতিবাদ জানান তিনি।

এসময় তিনি উত্তর-পূর্ব দিল্লির শাহীনবাগে নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদকারীদের প্রতি ধর্মীয় সহিংসতার তীব্র নিন্দা জানান। কলেজের মূল ফটকে অবস্থানের সময় তার দুহাতে ‘দিল্লীতে মোদির হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসী দ্বারা সংখ্যালঘু মুসলিমদের হত্যার প্রতিবাদ করুন’ ‘ভারতের মুসলমান সংখ্যালঘুসহ নিপীড়িত জনগণের পাশে দাঁড়ান’ লেখা সংবলিত প্ল্যাকার্ড দেখা গেছে। পাশাপাশি মুজিববর্ষ উপলক্ষে ঢাকায় মোদির আগমনের বিরোধিতা করেন তিনি।

আতিফ অনিক বলেন, মোদি সরকার সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার উদ্দেশ্যে মুসলিমদের উপর গণহত্যা শুরু করেছে। গত কয়েক মাস ধরেই ভারতের জনগণ এনআরসি এনপিয়ার এবং সিএএ বিরোধী আন্দোলন চালিয়ে আসছে। এই আন্দোলন দমন করবার উদ্দেশ্যে জনগণের উপর সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালাচ্ছে দেশটির সরকার। ভারতের বর্তমান পরিস্থিতি বাংলাদেশের জন্যেও উদ্বেগজনক। দক্ষিণ এশিয়ার মানুষদেরকে ভারতে নিপীড়িত জনগণের পাশে দাঁড়াতে হবে।

তিনি বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নির্দেশেই সেখানে মুসলমানদের ওপর হামলা চালানো হচ্ছে। এসব বন্ধ করতে হবে। একই সঙ্গে মুজিববর্ষে নরেন্দ্র মোদির নিমন্ত্রণপত্র বাতিল করতে হবে।

এদিকে ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব ইস্যুতে বিরোধের জেরে ভয়াবহ সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫ জনে পৌঁছেছে। ভয়াবহ ওই সহিংসতার মধ্যে দিল্লির অশোকনগরে দুর্বৃত্তরা একটি বড় মসজিদে হামলা চালিয়ে মসজিদের মিনারে গেরুয়া পতাকা ঝুলিয়ে দিয়েছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ