একুশের দিনেও পরীক্ষা নিলেন তিন শিক্ষক

মহান শহীদ দিবসে গাজীপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরকৃবি) পরীক্ষা নিয়েছেন তিন শিক্ষক। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়ায় বিরূপ প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছে বিভিন্ন মহল।

জানা গেছে, ২১ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২.৩০ থেকে বিকেল ৪.১৫ পর্যন্ত এগ্রিকালচার এক্সটেনশন অ্যান্ড রোয়াল ডেভোলপমেন্ট (৪৬১) কৃষি সম্প্রসারণ বিষয়ের (এফভিএমএস) এর চতুর্থ বর্ষের ‘বি’ গ্রুপের ১৮ জন ছাত্র-ছাত্রীর ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় ওই পরীক্ষা গ্রহণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর ড. মো. এনামুল হক, প্রফেসর শেখ শামীম হোসেন ও বেগম ফারহানা ইয়াসমিন এ পরীক্ষা গ্রহণ করেন।

এ বিষয়ে প্রফেসর শেখ শামীম হোসেন, ‘আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের সকল অনুষ্ঠান দুপুরের মধ্যে শেষ হয়ে যায়। সে কথা চিন্তা করে আমরা দুপুরের পর পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করেছি। তাছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে মাতৃভাষা দিবসের সকল কার্যক্রমে আমরা উপস্থিত ছিলাম। সেই সঙ্গে বাদ জুমা মহান শহীদদের জন্য দোয়ার অনুষ্ঠানেও আমরা উপস্থিত ছিলাম।’

তিনি আরো বলেন, ‘বর্তমান সময়টা আমাদের পরীক্ষা সময়। এই সময়ে প্রত্যেকদিন আমাদের সিডিউল রয়েছে। সে অনুযায়ী আজ সকালে আমাদের পরীক্ষার ছিলো কিন্তু আমারা সেই সূচী পরিবর্তন করে বিকেলে পরীক্ষা নিয়েছি। এছাড়া এছাড়া আগামী সোমবার ওই ১৮ জন শিক্ষার্থী ৫ দিনের ট্যুরে যাবে। সেজন্য শিক্ষার্থীদের কথা মাথায় রেখেই আমরা পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ এছাড়া এই কাজের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন এই তিনি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াস উদ্দীন মিয়া বলেন, ‘আমি বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নই। তবে আমি খোঁজ-খবর নিচ্ছি। এমন কিছু ঘটলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ