মাকে নিয়ে আর বাড়ি ফেরা হলো না কুবি শিক্ষার্থীর

নিহত সুজন আহাম্মেদ
নিহত সুজন আহাম্মেদ  © ফাইল ফটো

মাকে নিয়ে আর বাড়ি ফেরা হলো না কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সুজন আহাম্মেদের। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বাসের ধাক্কায় নিহত হয়েছেন তিনি। শুক্রবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বুড়িচং উপজেলার কাবিলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সুজন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র। তিনি বুড়িচংয়ের রূপদ্দি গ্রামের প্রয়াত রহমত আলীর পুত্র।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সুজনের মা শুক্রবার দুপুরে রাজধানী ঢাকা থেকে চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। মাকে এগিয়ে আনতে বুড়িচংয়ের কাবিলা বাসস্টেশন যান সুজন। বেলার আড়াইটার দিকে বাস থেকে নামার পর মাকে নিয়ে অটোরিকশাযোগে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন। তাদের বহনকারী অটোরিকশাটি মহাসড়ক পরাপারের সময় ঢাকাগামী এনা পরিবহনের দ্রুতগতির একটি বাস এটিকে ধাক্কা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায় এবং বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে ড়িয়ে পড়ে। এ সময় ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান অটোরিকশার যাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্র সুজন। আহত হন অটোরিকশা ও বাসের অন্তত ১০ যাত্রী। আহতদের উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়। দুর্ঘটনাকবলিত অটোরিকশা ও বাসটি উদ্ধার করে হাইওয়ে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুমিল্লার বুড়িচং থানার ওসি মোজাম্মেল হক বলেন, ‘ঘটনার সাথে সাথে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। লাশ উদ্ধার করে বর্তমানে তার বাড়িতে নিয়ে এসেছি।’

ময়নামতি হাইওয়ে ক্রসিং থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন জানান, দুর্ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার পূর্বেই স্বজনরা মরদেহ বাড়ি নিয়ে যায়। আমরা আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে প্রেরণ করেছি। দুর্ঘটনাকবলিত বাস ও অটোরিকশা ফাঁড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ