ছাত্রলীগ নেতার হাতে লাঞ্ছিত চবি ছাত্রী

নিয়াজ আবেদিন পাঠান

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) এক ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ উঠেছে শাখা ছাত্রলীগের এক কর্মীর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর এই বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী।

জানা গেছে অভিযুক্ত নিয়াজ আবেদিন পাঠান শাখা ছাত্রলীগের বগি ভিত্তিক গ্রুপ একাকার এর অনুসারী। তিনি ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের পদার্থবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী। অপরদিকে ভুক্তভোগী ছাত্রী লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। একই সঙ্গে ছাত্রলীগের অঙ্গ সংগঠন ‘সংগ্রাম’র অনুসারী।

লিখিত অভিযোগে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বলেন, ‘গত ২৮ নভেম্বর সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টেশন সংলগ্ন একটি খাবারের দোকানে আমি বন্ধু বান্ধবসহ প্রবেশ করছিলাম। তখন নিয়াজ আবেদিন পাঠান আমাকে কটূক্তি করে। আমি এর প্রতিবাদ করলে তিনি আমার সাথে তর্ক করেন। যা আমার জন্য খুবই অপমানজনক। তার অপরাধ বিবেচনা করে কর্তৃপক্ষকে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।’

অভিযুক্ত নিয়াজ আবেদিন পাঠান বলেন, তাকে তো আমি চিনিই না। আর এমনকিছুই ঘটেছে আমি সেটাও জানি না।

অভিযোগ পত্র

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বলেন, তিনি এখন আমাকে না চেনার অভিনয় করছেন। অথচ তিনি তখন সবার সামনে বলছিলো ‘তোমাকে তো আমি চিনি। তুমি জুনিয়র। আমি সিনিয়র হিসেবে তোমাকে একটা কথা বলতেই পারি।’

এ বিষয়ে চবি প্রক্টর এস এম মনিরুল হাসান বলেন, বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন নির্যাতন বিরোধী সেলে পাঠানো হবে। তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ