রাবি শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত: ছাত্রলীগ নেতাসহ আটক ৩

  © টিডিসি ফটো

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ আনামকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় ১ ছাত্রলীগ নেতাসহ আরো ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। ছিনতাই চেষ্টায় ব্যবহৃত মোটরসাইকেলসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী ও বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা অনিক মাহমুদ বনি, রংমিস্ত্রি মোস্তাফিজুর রহমান মিঠু (২৮) পিতা- মোস্তাকিন। উভয়ই নগরীর মির্জাপুর এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

এদিকে একই ঘটনায় স্থানীয় সন্ত্রাসী মেহেরচন্ডীর রাজুকে (২৩) গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মালামাল অপহরণ, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসার অভিযোগসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে জিম্মি করে মোবাইল ফোন ও ২০ হাজার টাকা আদায় করে সে।

এছাড়া ঘটনায় আরো ৫ জনকে সন্দেহজনক হিসেবে আটক করা হয়েছে। তবে বিভিন্ন সূত্রে থেকে জানা গেছে এরা দু’জনই ঘটনার মূল হোতা।

এদিকে ঘটনার পরে নিজেই ঘটনার বিচার দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা অনিক মাহমুদ বনি। এতে রক্তাক্ত ফিরোজ আনামের ছবিও যোগ করেন তিনি। তিনি লিখেছেন, ‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী ফিরোজ আনামের উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত সনাক্ত করে গ্রেফতারের মাধ্যমে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানাচ্ছি’।

এই ঘটনায় পেনাল কোডের ৩৪১/৩২৫/৩৯৩/৩০৭ /৩৪ ধারায় মতিহার থানার একটি মামলা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, ‘পুলিশ ঘটনার শিকার ফিরোজ আনামকে ছবি দেখালে সে তাদের সনাক্ত করে। সে তথ্যের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের হবিবুর রহমান হলের মাঠে অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ আনামকে ছুরি ও হাতুড়ি দিয়ে মেরে আহত করে সন্ত্রাসীরা। ঘটনার পরপরই আন্দোলনে উত্তাল হয়ে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ