গাজা-হাতুড়িসহ কুবিতে দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক, রুম সিলগালা

সজীব কুমার ও বিজয় (ডানে)

গাজা, হাতুড়িসহ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উপ-সাহিত্য সম্পাদক জসীম উদ্দিন বিজয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজীব কুমার কর ও এক শিক্ষার্থীকে আটক করেছে হল প্রশাসন।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ৫০৬ নং কক্ষ থেকে মাদকাসক্ত অবস্থায় তাদের আটক করে হল প্রশাসন। পরবর্তীতে ওই রুমটি সিলগালা করে তাদের হল থেকে বের করে দেয়া হয়।

ছাত্রলীগ নেতা জসীম উদ্দিন বিজয় বাংলা বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষার্ষের শিক্ষার্থী এবং সজীব পরিসংখ্যান বিভাগের ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী। অপরজন হলেন পরিসংখ্যান বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী খলীলুর রহমান শিবলু।

হল প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সন্ধ্যায় হল পরিদর্শনে যান বঙ্গবন্ধু হলের প্রাধ্যক্ষ। এ সময় হলের ৫০৬ নং কক্ষ থেকে গাজার গন্ধ পেয়ে কক্ষের ভিতরে অভিযান চালান তিনি। তখন গন্ধ দূর করতে সজীব রুম স্প্রে করছিলেন। এবং বাকী দুইজন শুয়ে ছিলেন। পরে তাদেরকে উঠিয়ে টেবিলের ড্রয়ার থেকে ৩ প্যাকেট গাজা, বালিশের নিচ থেকে হাতুড়ি, সাদা রঙ্গের মাদকদ্রব্য এবং ড্রয়ার থেকে বন্ধ অবস্থায় ৩টি ফোন জব্দ করা হয়। পরে জব্দকৃত দ্রব্য প্রক্টরিয়াল বডির কাছে হস্তান্তর করা হয় এবং তাৎক্ষণিকভাবে ওই কক্ষ সিলগালা করে দেয়া হয়।

বঙ্গবন্ধু হলের প্রাধ্যক্ষ মো. জিয়া উদ্দিন বলেন, ‘আমরা মাদক সেবনরত অবস্থায় তিনজনকে হলের ৫০৬ নং কক্ষে গাজা সেবনরত অবস্থায় পেয়েছি। তাদের কাছে গাজা, হাতুড়ি এবং মাদকদ্রব্য পেয়েছি। প্রক্টরিয়াল বডির কাছে উদ্ধারকৃত দ্রব্য হস্তান্তর করেছি এবং কক্ষটি সিলগালা করে দিয়েছি।’

তবে আটককৃতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টি প্রক্টরিয়াল বডির বলে হল প্রাধ্যক্ষ দাবি করলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন বলেন, ‘আমরা জব্দকৃত মাল পেয়েছি। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে কোন ছাত্রকে আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়নি।’

শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ বলেন, ‘আমরা তাৎক্ষনিকভাবে বিষয়টি জেনেছি। তাদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা গ্রহণ করার জন্য আমরা এখনই বসবো। শাখা ছাত্রলীগ কোন দায়ভার নিবে না।’

 


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ