টর্চার সেল পাওয়া গেলেই ব্যবস্থা: ইবি উপাচার্য

উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী  © টিডিসি ফটো

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) আবাসিক হলগুলোতে টর্চার সেল নামক কোন জিনিসের অস্তিত্ব থাকবে না। এ ধরনের কিছু পাওয়া গেলে ১ ঘণ্টার মধ্যে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার প্রশ্নে বিশ্ববিদ্যালয় একটি অভয়ারণ্য।

শনিবার (১২ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস ক্লাবের সদস্যদের সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাতকালে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, বুয়েটের ঘটনার পর হল প্রশাসন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে কর্তৃপক্ষ আরও জোড়ালো নীতিমালা গ্রহণ করবে। আবাসিক হলে মেধাভিত্তিতে সিট বন্টন করা হয়। যেখানে অছাত্র, বহিরাগত, সন্ত্রাসী ঢুকার কোন সুযোগ নেই।

উপাচার্য বলেন, ছাত্রলীগ বা যেকোনো সংগঠনই হউক, যারা বিশ্ববিদ্যালয়ে নৈরাজ্য এবং অস্থিরতা সৃষ্টি করতে চায় তাদেরকে অপরাধী হিসেবেই গণ্য করা হবে। কোন রাজনৈতিক কাঠামো দিয়ে তাদের বাঁচানোর সুযোগ নেই।

সম্প্রতি বুয়েটের ঘটনার বিষয়ে তিনি বলেন, বুয়েটে যে ঘটনাটি ঘটেছে সেটি কোন ছাত্র রাজনীতি নয়। সেটি বিশুদ্ধ সহিংসতা। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থ কেন্দ্রিক ছাত্র রাজনীতির দরকার। তাই ক্যাম্পাসে সহিংস ছাত্র রাজনীতি না হয়ে শুদ্ধাচারের রাজনীতি কাম্য।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফেদাউসুর রহমান সোহাগ, সহ-সভাপতি আসিফ খানসহ প্রেস ক্লাবের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ