বুয়েট চাইলে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বুয়েট চাইলে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে। এখন অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ রয়েছে। তাই বুয়েট চাইলে সেখানেও ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করতে আমরা প্রস্তুত।

আজ বিকালে গণভবনে ভারত সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এক সাংবাদিকের ছাত্ররাজনীতি নিয়ে প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি। সাংবাদিকের প্রশ্ন ছিল, বাংলাদেশে ছাত্ররাজনীতি নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলছেন। বর্তমানে বিভিন্ন সহিংসতায় ছাত্র সংগঠনগুলো জড়িত হচ্ছে।

এর জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ছাত্র সংগঠনগুলোর নিয়ন্ত্রণহীনতার সংস্কৃতি আমাদের সময় ঘটেনি। তবে ছাত্রলীগ বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংঘটন। এখন যারা এটিকে ব্যবহার করে অপরাধ করছে তাদের অবশ্যই বিচার হবে। এছাড়া দেশে এমন অবস্থা হয়নি, যাতে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করতে হবে।

বুয়েটের প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বুয়েট চাইলে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে। এখন অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্ররাজনীতি বন্ধ রয়েছে। তাই বুয়েট চাইলে সেখানেও ছাত্ররাজনীতি বন্ধ করতে আমরা প্রস্তুত।

শেখ হাসিনা ভারত সফরের সময় ৫ অক্টোবর দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন। ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গেও তিনি সাক্ষাৎ করেন। দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী যৌথভাবে তিনটি দ্বিপক্ষীয় উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেন। এ সময় তাঁদের উপস্থিতিতে সাতটি দ্বিপক্ষীয় চুক্তি সই হয়।

ভারতের কংগ্রেস দলের সভাপতি সোনিয়া গান্ধী, সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী গত রোববার তাজমহল হোটেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ