সাপ আতঙ্কে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে সাপ দেখতে পাওয়া যায়। এবারও তার ব্যতীক্রম নয়। বর্তমানে সাপ আতঙ্ক বিরাজ করছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীদের মাঝে। ক্যাম্পাস খুললে আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হবে বলে জানিয়েছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রশাসনিক ভবন-২ এর নিচতলায় একটি সাড়ে তিন হাতের মতো লম্বা কালিজাত সাপ দেখার পর পর আতঙ্ক আরো বেড়েছে। ইতোমধ্যে প্রতক্ষদর্শীরা সাপটির ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন পেজ ও গ্রুপে পোস্ট করেছেন। যা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে শিক্ষার্থীেদের মধ্যে।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি, এটি একটি বিষধর সাপ, যাকে স্থানীয়ভাবে কালিজাত সাপও বলা হয়। আর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দিনের বেলা এ সাপ দেখা যাওয়ায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক কয়েকগুণ বেড়ে গেছে।

তারা জানান, গত বছরও বর্ষার সময় ক্যাম্পাসে সাপ দেখা যায়। কিন্তু এ বছর সাপের উপদ্রব গতবারের চেয়ে বেশি। এর কারণ হিসেবে তারা ক্যাম্পাসের ভেতরে জঙ্গল ও জলাশয় পরিষ্কার না করাকে দায়ী করছেন।

মোটামুটি বড় আকৃতির সাপটিকে সামনে থেকে দেখা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মো. আবু বকর বলেন, ক্লাস থাকায় সকাল সাড়ে ৯টার সময় প্রশাসনিক ভবন-২ এর দিকে যাচ্ছিলাম। ভবনের নিচতলার সিঁড়ি দিয়ে উঠতে গিয়ে হঠাৎ করে আমাদের চোখের সামনে দিয়ে সাপটি যেতে দেখা যায়। এতবড় সাপ দেখে ভয় পেয়ে যাই। সাপটি যাওয়ার সময় কিছুটা ফনাও তুলেছে, ভয় পেয়ে আর বেশি কিছু করতে যাইনি।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপর শিক্ষার্থী শফিকুল ইসলাম জানান, এ সাপের সমস্যা দীর্ঘদিন ধরে হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে কামড়ানোর ঘটনা ঘটেনি। ক্যাম্পাসের ঝোপঝাড় বড় হয়ে গেছে, জলাশয় ও ঝোপঝাড় দীর্ঘদিন পরিষ্কার করা হচ্ছে না। আর বর্ষার এ সময়টাতে গর্তে পানি থাকার কারণেই হয়তো সাপগুলো বাইরে বের হয়ে আসছে।

তিনি জানান, আগের সাপগুলো আকারে ছোট হলেও আজ যে সাপটি দেখা গেছে তা আকারে অনেক বড়। এরআগে ক্যাম্পাসের রাস্তায় সাপ দেখা গেছে। এ নিয়ে সবার মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। অতিদ্রুত জলাশয় ও ঝোপঝাড় পরিষ্কার করার পাশাপাশি সাপের উপদ্রব বন্ধে কার্যকর ভূমিকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নেওয়া উচিত।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সুব্রত কুমার দাস বলেন, সাপের বিষয়টি আমরা জেনেছি, যত দ্রুত সম্ভব এ বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ