মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের কক্ষ ভাঙচুর, মালামাল লুটপাট

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ছাত্রদের আবাসিক আলাওল হলে এক মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের কক্ষ ভাঙচুর করে নগদ টাকা ও মালামাল লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী ৫ জনকে অভিযুক্ত করে প্রক্টর বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

এর আগে বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাত ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আলাওল হলের ৪৩৮ নম্বর রুমে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর নাম মো. রমজান হোসাইন। সে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

লিখিত অভিযোগে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী লিখেন, তার অনুপস্থিতিতে রুমের তালা ভেঙে ভাঙচুরসহ লুটপাট করা হয়। এসময় রুমের কাপড়-চোপড়, বইপত্র ও ব্যাগে থাকা ২০৫০ টাকা নিয়ে যায় লুটপাট কারীরা।

অন্যদিকে অভিযুক্তরা হলেন, রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের মো. শাহজাহান, মেরিন সায়েন্স বিভাগের একই শিক্ষাবর্ষের জাহিন খন্দকার, লোক প্রশাসন বিভাগের একই শিক্ষাবর্ষের মো. সূচক, আরবি বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের জোবায়ের আহমেদ ও হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মো. আবির।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী মো. রমজান হোসাইন বলেন, গতকাল রাত ১১ টার দিকে আমি রুমে না থাকায় অভিযুক্ত ৫ জন আমার রুমের তালা ভেঙে ভাঙচুর চালায় এবং টাকা ও মালামাল লুটপাট করে। এ ঘটনায় প্রক্টর অফিসে অভিযোগ দিয়েছি। একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে এ ঘটনার বিচার দাবি করছি।

অভিযোগ পত্র

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) প্রণব মিত্র চৌধুরী বলেন, আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি। হল কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


মন্তব্য