জাবিতে সাংবাদিক অপদস্থের ঘটনায় যবিপ্রবিসাসের প্রতিবাদ

  © ফাইল ফটো

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য ফারজানা ইসলাম কর্তৃক বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত দুই সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (যবিপ্রবিসাস)। শনিবার  যবিপ্রবিসাস সভাপতি রাসেল আজাদ ও সাধারণ সম্পাদক মোসাব্বির হোসাইন এক যৌথ বিবৃতিতে এই নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম আলো এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি যথাক্রমে মাইদুল ইসলাম ও শরীফুল ইসলাম সীমান্ত গত ২২ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান বিভিন্ন বিষয়ে সংবাদের প্রয়োজনে বক্তব্য জানার জন্য উপাচার্যের কার্যালয়ে আলোচনার এক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পের দুই কোটি টাকা ছাত্রলীগের মধ্যে বন্টনের অভিযোগ সম্পর্কে উপাচার্যের বক্তব্য জানত চান। এসময় উপাচার্য সাংবাদিকদের উপর প্রচন্ড রেগে যান।’

তারা বলেন, ‘এমন প্রশ্ন করার সাহস কোথায় পেল বলে ধমকাতে থাকেন। এসময় উপাচার্য প্রক্টরকে সাংবাদিকদ্বয়ের বিরুদ্ধে ছাত্র-শৃঙ্খলা বিধিতে ব্যবস্থা নিতে বলেন এবং তাদের বিভাগীয় সভাপতিকে ডেকে পাঠান। একপর্যায়ে উপাচার্য ছবি তুলে রাখার নির্দেশ দিলে পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মেঃ আশরাফুল আলম তাদের ছবি তুলে রাখেন। দীর্ঘ দুই ঘন্টা ধরে ধরে ধমকাধমকি করেন এবং নানা হুমকি প্রদান করেন।’

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক পদে থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে এহেন অপেশাদার ও অশোভনমূলক আচরণ কোনোভাবেই কাম্য নয়। বিভাগীয় সভাপতিকে ডেকে আনা ও সাংবাদিকদের ছবি তুলে রাখা চরম অশোভন ও তাদের শিক্ষাজীবনের জন্য হুমকি স্বরূপ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফারজানা ইসলাম খুব দ্রুত সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সাথে বসে এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার যথাযথ ব্যাখ্যা দিয়ে ক্যাম্পাসে সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন। এছাড়া প্রশাসনকে এ ধরনের আচরণ থেকে বেরিয়ে আসার আহবান জানান তারা।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ