কুবি ক্যাফেটেরিয়া: মুরগির মাংসের পরিবর্তে টিকটিকি

মাংসের বাটিতে আস্ত টিকটিকি  © সংগৃহীত

দুপুরে খাবার খেতে গেলেন। অর্ডার করলেন মুরগীর মাংস। অর্ডার আসার পর দেখলেন মুরগির মাংসের ভেতর আস্ত এক টিকটিকি। এমনি এক ঘটনা ঘটেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি)। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ায় খেতে গিয়ে মুরগির মাংসের মধ্যে মিলেছে টিকটিকি।

জানা যায়, গত ২১ আগস্ট (বুধবার) কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়াতে দুপুরে ভাত খাওয়ার জন্য যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী জোহায়ের বিন কায়েস, আব্দুর রাজ্জাক ও শামিম। তারা মুরগির মাংস দিয়ে ভাত খাওয়ার সময় দেখতে পায় মুরগির বাটিতে আস্ত একটি টিকটিকি। এই পরিস্থিতিতে তারা ক্যাফেটেরিয়ার ম্যানেজারকে বিষয়টি জানিয়ে খাবার রেখে চলে আসেন।

পরবর্তী সময়ে বিষয়টি নিয়ে ক্যাফেটেরিয়ায় কর্মরতদের জিজ্ঞাসা করা হলে তারা বিষয়টি জানেন না বলে উত্তর দেন। তবে ক্যাফেটেরিয়ার ম্যানেজার মহিউদ্দিন মজুমদার বলেন, ‘আমি শুনেছি এমন একটা সমস্যা হয়েছে। এটি অবশ্যই দুঃখজনক। আমরা চেষ্টা করি, খাবার ভালোভাবে সংরক্ষণের জন্য। ভবিষ্যতে আমরা আরও সচেতন থাকব।’

ক্যাফেটেরিয়ায় খেতে আসা শিক্ষার্থী জোহায়ের বিন কায়েস বলেন, ‘সেদিন দুপুরে খেতে গিয়ে মুরগির মাংসের ভেতর টিকটিকি পেয়েছি। এত বড় একটা টিকটিকি খাবার পরিবেশনের সময়েও তো চোখে পড়ার কথা। যেখানে খাবারে টিকটিকি পাওয়া যায় সেখানে আদৌ নিরাপদ খাবার কীভাবে আশা করা যায়?’

শুধু ২১ তারিখই নয় এর আগেও বিভিন্ন সময়ে ক্যাফেটেরিয়ার খাবারের মধ্যে তেলাপোকা, মাছিসহ বিভিন্ন ধরনের পোকামাকড় ও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর এমন উপাদান পাওয়া যায় বলে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের। অসচেতনতা এবং অপরিচ্ছন্নতাই যার মূল কারণ।

ক্যাফেটেরিয়ার ম্যানেজার মহিউদ্দিন মজুমদার এ বিষয়ে বলেন, ‘ক্যাফেটেরিয়ার বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে বারবার বলার পরেও সমস্যার সমাধান করছেন না তারা। শুধু আশ্বাসই দিয়ে যাচ্ছেন তারা। শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হলের ট্যাংকের পানির মাধ্যমে ক্যাফেটেরিয়ার পানির চাহিদা মেটাতে হয়। এ বিষয়ে কয়েকবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের বলেন, ‘ক্যাফেটেরিয়ায় পানি, বৈদ্যুতিক ও ব্যবস্থাপনা সমস্যাগুলো আগামী সপ্তাহে সমাধানের ব্যবস্থা করছি। খাবারের মানোন্নয়নসহ অন্যান্য বিষয়ে আমরা ক্যাফেটেরিয়ার ম্যানেজারকে চাপ দিব। এছাড়া ক্যাফেটেরিয়া পরিচালনার জন্য শিক্ষক-কর্মকর্তাদের নিয়ে দ্রুত একটি কমিটি গঠন করব।’


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ