হাবিপ্রবিতে ২১ আগস্ট নিহতদের স্মরণে আলোচনাসভা ও দোয়া

  © টিডিসি ফটো

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী শিক্ষক পরিষদের উদ্যোগে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) বিভীষিকাময় ২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

বুধবার( ২১ আগস্ট ২০১৯) বিকেল ৪ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স রুমে উক্ত দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী শিক্ষক পরিষদের শতাধিক শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী শিক্ষক পরিষদের সদস্য ড. মো. হাসানুর রহমান (রাজু) এর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. ভবেন্দ্র কুমার বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক (বীরমুক্তিযোদ্ধা),যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মো. খালেদ হোসেন, প্রফেসর ড.শ্রীপতি সিকদার ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য প্রফেসর ড. মো .শাহাদত হোসেন খান (লিখন) এবং প্রফেসর ড. মো. তারিকুল ইসলাম প্রমুখ ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর বাংলার ইতিহাসে আরেকটি কলঙ্কজনক ও বিভীষিকাময় দিন হচ্ছে ২১ শে আগস্ট। ১৫ আগস্টে যাদের ষড়যন্ত্রে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারকে শাহাদত বরণ করতে হয়েছিল । ঠিক সেই সকল ব্যক্তির উত্তরসুরিরাই পুনরায় বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার মাধ্যমে আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করার চেষ্টা চালিয়েছে ৷ তাদের সেদিনের সেই নারকীয় হামলায় প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আইভি রহমানসহ প্রাণ হারান ২৪ জন, আহত হয় অসংখ্য মানুষ।

কিন্তু রাখে আল্লাহ ,মারে কে? তাদের সেই ষড়যন্ত্র ব্যার্থ হয়েছে । সৃষ্টিকর্তার অশেষ রহমতে জননেত্রী প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনা সেদিন অল্পের জন্য বেঁচে যান । আজ তিনি চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে কাজ করে যাচ্ছেন । তার দক্ষ নেতৃত্বে দেশ এখন মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিতি লাভ করেছে । এসময় বক্তারা আগামী প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান এবং ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার সাথে জড়িতদের দ্রুত বিচার কার্যকর করে দেশকে কলঙ্কমুক্ত করার জোর দাবি জানান ।

পরে গ্রেনেড হামলায় নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয় ।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ