গণস্বাস্থ্যের নাম ব্যবহার করে ভুয়া নোটিশ, কর্তৃপক্ষের সতর্কতা

  © ফাইল ফটো

দেশের অন্যতম বেসরকারি প্রতিষ্ঠান গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের নাম ব্যবহার করে কে বা কারা দুটি বেনামি ভুয়া নোটিশ প্রকাশ করেছে বলে সতর্ক করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

শুক্রবার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সমন্বয়ক ডা. মনজুর কাদির আহমেদ এক জরুরী বিজ্ঞপ্তিতে সংশ্লিষ্ট সকলকে এই নোটিশ দুটির বিভ্রান্তি থেকে সকলকে সতর্ক থাকার অনুরোধ করেন।

ডা. মনজুর কাদির স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২২ মে গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ সাভার হাসপাতালের নিচ তলায় লিফটের সামনে দুটি বেনামি নোটিশ কতৃপক্ষের দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

নোটিশ দুটির একটিতে বলা হয়েছে, কোভিড - ১৯ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মিজানুর রহমানকে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি চিকিৎসকের ভয়ে এবং নিজ অদক্ষতার কারণে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছেন। এমতাবস্থায় তার পদ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে এবং ডা. মাহবুব যোবায়ের সোহাগকে ভারপ্রাপ্ত পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

অপর নোটিশে, দেশের কোভিড-১৯ জনিত দুর্যোগ বিবেচনা করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের বেতনভুক্ত সকল স্তরের কর্মী, শিক্ষক, কর্মচারী ও চিকিৎসকদের মে মাসের বেতনের সাথে ৫ দিনের অতিরিক্ত বেতন প্রদান করা হবে। ইতিমধ্যে এই নোটিশ সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার হয়েছে বলেও কতৃপক্ষ অবগত হয়েছেন।

এসব বিষয়ে ডা. মনজুর কাদির গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের অবস্থান স্পষ্ট করে বলেন, নোটিশ দুটি বেনামী, ভুয়া এবং উদ্যেশ্যমূলক। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে কোনোভাবেই অবগত নয়। নোটিশে উল্লিখিত বিষয়ে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র গ্রহণ করে নাই।

তিনি জানান, কোনো একটি চক্র প্রতিষ্ঠানকে হেয় এবং বিভ্রান্ত করার জন্য সবার অগোচরে এই কাজটি করেছে বলে কর্তৃপক্ষ ধারণা করছে। এই কাজটি কারা করেছে তা বের করার জন্য জোর তৎপরতা চালাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ