দেশে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নেতৃত্ব দেবে তরুণরা: আইইউবিএটিতে রুবানা হক

  © টিডিসি ফটো

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তে ডিজিটাল শিল্প বিপ্লব উপযোগী শিক্ষা ব্যবস্থার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নেতৃত্ব দিতে হবে তরুণ-তরুণীদের বলে জানিয়েছেন বিজিএমইএর সভাপতি ড. রুবানা হক।

আজ বুধবার (২৯মার্চ) ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি (আইইউবিএটি) এবং বাংলাদেশ সোসাইটি ফর হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট (বিএসএইচআরএম) এর যৌথ আয়োজনে ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব মোকাবিলায় আগামির চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অথিতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়য়ের ওপেন অডিটোরিয়ামে এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়। আইইউবিএটির উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুর রবের সভাপতিত্বে সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইইউবিএটির কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক সেলিনা নার্গিস।

সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুর রব বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের কারণে আগামী দিনের শ্রম বাজার দখল করবে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ও রোবটরা। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দক্ষ মানব সম্পদ তৈরির ওপর গুরুত্ব ও প্রাধান্য দিয়েই আমাদের পাঠ্যক্রম পরিবর্তন করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার শর্তই হলো প্রযুক্তিগত জ্ঞান। অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও প্রযুক্তিগত জ্ঞানকে কাজে লাগাতে পারলেই ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ হয়ে উঠবে,উন্নত ও স্ব-নির্ভর।

সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন বিএসএইচআরএম এর সভাপতি মোহাম্মদ মাশেকুর রহমান খান, বৈদেশিক কর্মসংস্থান কাউন্সিল (বিএফইসি) সভাপতি এম নাইম হোসেন , বিএসএইচআরএম সহ সভাপতি কাজী রাকিব উদ্দিন আহমেদ, আইইউবিএটির প্লেসমেন্ট এবং অ্যালামনাই অফিসের পরিচালক একেএম শরফুদ্দীন, বিবিএ ডিপার্টমেন্ট এর কোঅরডিনেটর আব্দুল্লাহ আল ইউসুফ খান এবং কম্পিউটার সাইনেন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কৃষ্ণা দাস।

বক্তারা বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রভাবে আগামী ২০ বছরে দেশে শ্রম খাতে ব্যাপক পরিবর্তন আসবে। এতে তৈরি পোশাকসহ শ্রমঘন বিভিন্ন খাতে প্রচুর মানুষ চাকরি হারাবে। এ জন্য মানসম্মত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ কর্মী বাহিনী তৈরি করতে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগের সমন্বয় ঘটাতে হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ