সিদ্ধেশ্বরীতে উদ্ধার হওয়া তরুণী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী

  © ফাইল ফটো

সিদ্ধেশ্বরীতে উদ্ধার হওয়া মৃত তরুণীর পরিচয় মিলেছে। সে রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন। বৃহস্পতিবার (০৫ ডিসেম্বর) রাতে রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম ওই শিক্ষার্থীর পরিচয় সনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওই ছাত্রীর নাম রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা (২১)। রুম্পা ঢাকার স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রথম বর্ষে পড়তেন। মালিবাগের শান্তিবাগে মা ও ভাইয়ের সঙ্গে থাকতেন তিনি। তার বাবার নাম রোকন উদ্দিন। রোকনউদ্দিন হবিগঞ্জ জেলা পুলিশে কর্মরত।

এরআগে গতকাল বুধবার (৪ ডিসেম্বর) রাত পৌনে এগারটার দিকে সিদ্ধেশ্বরী সার্কুলার রোড আয়েশা শপিং কমপ্লেক্সের পেছনে দুই বাড়ির মধ্যে থেকে ওই তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ক্রাইমসিন ক্রাইমসিন ইউনিট। সেখানে বিভিন্ন আলামত সহ ওই নারীর ফিঙ্গারপ্রিন্ট সংগ্রহ করেন তারা।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ জানিয়েছেন, বিকেল ৩টায় ঢামেক হাসপাতাল মর্গে ওই তরুণীর মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। মৃত্যু আগে ওই তরুণী ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য মরদেহ থেকে হাইভেজেনাল সপ নমুনা, ভিসেরা সংগ্রহ করা হয়েছে। তা পরীক্ষাগারে পাঠানো হবে। সেই রিপোর্ট এলে বিস্তারিত প্রতিবেদন দেওয়া হবে। তবে উপর থেকে পড়েই ওই তরুণীর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ