সেরাদের সেরা স্বর্ণপদক পেলেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির সাদিয়া

  © টিডিসি ফটো

ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির ষষ্ঠ সমাবর্তনে ৯ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়েছে। চারটি অনুষদ থেকে এসব শিক্ষার্থীরা এ বছর স্বর্ণপদকের জন্য মনোনীত হন। তাদের মধ্যে চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল অর্জন করেন দুজন, তাঁরা দুজনই ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের শিক্ষার্থী। আর স্নাতকোত্তর ডিগ্রিপ্রাপ্ত তিনজনকে দেয়া হয় চেয়ারম্যানস গোল্ড মেডেল। এদের একজন হলেন ইংরেজি বিভাগের সাদিয়া আফরিন। বাকি দুজনের একজন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের এবং অপরজন আইন বিভাগের।

শনিবার সাভারের আশুলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত এ সমাবর্তনে রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের প্রতিনিধি হিসেবে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এসব মেধাবী শিক্ষার্থীদের হাতে এসব স্বর্ণপদক তুলে দেন।

জানা যায়, ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি থেকে মাস্টার্স ইন ইংলিশ ল্যাংগুয়েজ এন্ড লিটারেচার (এম.এ ইন ইএলএল) পরীক্ষায় সর্বোচ্চ সিজিপিএ অর্জন করায় চেয়ারম্যানস গোল্ড মেডেল লাভ করেন সাদিয়া আফরিন। সাদিয়া আফরিন নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলার নোয়াকান্দী গ্রামের অধ্যাপক রিয়াজ উদ্দিন ও হাফছা বেগমের একমাত্র কন্যা। বাবা অধ্যাপক রিয়াজ উদ্দিন মনোহরদী সরকারি কলেজের ইসলাম শিক্ষা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক। দুই সন্তান, সালিত ও সাওদার জননী সাদিয়া টাঙ্গাইল জেলার বাসাইল উপজেলার আদাজান গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক যুবাইর হাসানের স্ত্রী। তিনি পিকজেল গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এবং সাউথইস্ট সোয়েটার্স এর চেয়ারম্যান।

নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে সাদিয়া আফরিন দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, আমি সত্যিই আজ বিমুগ্ধ। মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা জানাই। আমার এ অর্জনের জন্য আমার মা-বাবা,আমার জীবন সঙ্গী এবং শিক্ষকবৃন্দের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। তিনি বলেন, সংসার সামলেও আমি পড়াশোনা থেকে পিছপা হয়নি। নারীদের অগ্রযাত্রায় বিয়ে কোন বাধা নয়। অভিভাবক ও স্বামীরা সচেতন হলেই নারীদের উচ্চশিক্ষা অর্জন সম্ভব। ভবিষ্যতের জন্য সকলের কাছে আমি দোয়াপ্রার্থী।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ