‘সংবাদমাধ্যমে কাজ করতে গিয়ে নারীরা বৈষম্যের শিকার হন’

সেমিনারে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা  © টিডিসি ফটো

সংবাদমাধ্যমে কাজ করতে গিয়ে নারীরা নানা ধরণের বৈষম্যের শিকার হন বলে জানিয়েছেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ডিআইইউ) সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের সিনিয়র শিক্ষক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ড. শেখ শফিউল ইসলাম।

আজ রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের সোবহানবাগ ক্যাম্পাসের (ডিটি-৫) ডিজিটাল ক্লাস রুমে আয়োজিত ‘বাংলাদেশের টিভি চ্যানেলগুলিতে মহিলারা, লিঙ্গ অংশগ্রহণে বিশ্লেষণ’ শিরোনামে এক সেমিনারে এ কথা বলেন তিনি। সেমিনারটি সকাল সাড়ে ১০টা থেকে শুরু হয়ে চলে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত।

ড. শেখ শফিউল ইসলাম বলেন, সংবাদমাধ্যমে কাজ করতে গিয়ে নারীরা নানা ধরণের বৈষম্যের শিকার হন। নারীরা টিভি-চ্যানেগুলিতে বিভিন্ন ক্ষেত্রেই অবহেলিত হয়ে আসছেন। বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে যে, পুরুষদের তুলনায় নারীদের অবহেলার পরিমাণ বেশি। তিনি এ সমস্যা সমাধানে দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের কথা বলেন।

সেমিনারের উদ্বোধন করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা ও গণ যোগাযোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সেলিম আহমেদ। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার ড.গোলাম রহমান। এছাড়াও মুখ্য আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণ যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সিনিয়র শিক্ষিকা ড. হেলেনা ফেরদৌসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণ যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষিকা ড. কাবেরী গায়েন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, 'ততদিন পর্যন্ত নারীরা বৈষম্যের স্বীকার হবেন যতদিন না পুরুষরা এগিয়ে আসছে এই বৈষম্য দূরীকরণে।'

সেমিনারে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত শিক্ষক শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের সিনিয়র শিক্ষক ড. তৌফিক ই ইলাহী।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ