আন্দোলনের মুখে আহসানউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদত্যাগ

  © টিডিসি ফটো

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে পদত্যাগ করেছেন রাজধানীর আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য কাজী শরিফুল আলম।

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) রাতে বিশ্ববিদ্যালয়টির রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আবদুল গফুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এছাড়া আন্দোলনের কারণে ২ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা ও ৩ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সেমিস্টার পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। এ অবস্থায় পরীক্ষার নতুন তারিখ ঠিক করা হবে বলে আবদুল গফুর জানিয়েছেন।

গত সোমবার থেকে শিক্ষার্থীরা ‘ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য’ কাজী শরিফুল আলমের পদত্যাগসহ নয় দফা দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন। এমন অবস্থায় কাজী শরিফুল আলম পদত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কাজী শরিফুল আলমের পদত্যাগের পরিপ্রেক্ষিতে নিয়মিত উপাচার্য যোগদান না করা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ভারপ্রাপ্ত কোষাধ্যক্ষ’ অধ্যাপক মো. আমানউল্লাহকে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্যের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আর বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত ছাত্রছাত্রীদের অন্যান্য দাবি নিয়মিত উপাচার্য যোগদানের পর বিবেচনার জন্য পেশ করা হবে।

অবশ্য, আইনত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কোনো শিক্ষককে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য, সহ–উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ দিতে পারে না। এই নিয়োগ দেওয়ার ক্ষমতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য হিসেবে রাষ্ট্রপতির।

উল্লেখ, কয়েক দিন আগেই রাষ্ট্রপতির নিয়োগ করা উপাচার্য, সহ-উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ ছাড়াই সমাবর্তনের আয়োজন করেছিল এই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সমাবর্তনের আগের দিন শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিষয়টি জানার পর সমাবর্তন স্থগিত করা হয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ