ইডিইউর সহযোগী অধ্যাপক রাশেদের পিএইচডি অর্জন

ইউনিভার্সিটি উতারা মালয়েশিয়া থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির (ইডিইউ) সহযোগী অধ্যাপক রাশেদ আল করিম। তিনি সম্প্রতি ইডিইউতে ফিরেছেন। এ সময় ইডিইউর প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদ আল নোমান শুভেচ্ছা জানিয়ে তাকে বরণ করে নিয়েছেন।

ড. রাশেদ আল করিমের গবেষণার বিষয়বস্তু ছিলো- ড্রাইভার্স এন্ড ব্যারিয়ার্স অব কর্পোরেট সোশ্যাল রেস্পনসিবিলিটি (সিএসআর) ইমপ্লিমেন্টেশন ইন এ লেস ডেভলপড কান্ট্রি: দ্য কেইস অব বাংলাদেশ’স হোটেল সেক্টর।

বাংলাদেশের মতো কম উন্নত দেশের হোটেল সেক্টরে সিএসআর’র বর্তমান অবস্থা বিশ্লেষণ ও সরেজমিন তথ্য সংগ্রহের মাধ্যমে ড. রাশেদ তার এ গবেষণা পরিচালনা করেছেন। তার মতে, পরিবেশ ও পর্যটন খাতের উন্নয়নে ব্যাংকিংয়ের মতো হোটেল খাতেও কর্পোরেট বিনিয়োগ প্রয়োজন। এতে সামাজিক দায়বোধের সংস্কৃতি গড়ে উঠবে। এ লক্ষ্যে সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতা ও নানা রকমের সুযোগ-সুবিধা দেয়া প্রয়োজন। একই সাথে হোটেলগুলো যাতে পরিবেশ ও সামাজিক উন্নয়নে করণীয়গুলো পালনে বাধ্য হয়, তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজন নজরদারি।

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি পরিবারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, গবেষণার জন্য শিক্ষাছুটিসহ প্রতিটি পদক্ষেপে এবং অন্যান্য কনফারেন্স-সেমিনারে অংশ নেয়ার ক্ষেত্রে সবসময়ই সহযোগিতা করেছে ইডিইউ। গবেষণায় ইডিইউ কর্তৃপক্ষের নিরন্তর উৎসাহ এ পথে এগিয়ে যেতে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে।

ড. রাশেদ আল করিম এ যাবৎ বেশ কয়েকটি দেশি-বিদেশি পিয়ার-রিভিউড জার্নালে ১৮টি গবেষণা প্রবন্ধ প্রকাশ করেছেন। তার প্রবন্ধ প্রকাশকদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো বিশ্বখ্যাত এলসেভিয়ের ও স্প্রিনজার প্রকাশনী, ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া পেরলিস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস। এছাড়া দুটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেছেন তিনি।

ৎড. রাশেদ আল করিমকে শুভ কামনা জানিয়ে ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদ আল নোমান বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ফ্যাকাল্টি মেম্বারের মূল কাজ গবেষণা। পিএইচডি অর্জন এই যাত্রার একটি ধাপ। ড. রাশেদ এখানেই থেমে না থেকে পোস্ট-ডক্টরালসহ গবেষণায় আরো দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে দেশের জন্য আন্তর্জাতিক সুনাম বয়ে আনবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ