প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি আগস্টে

  © ফাইল ফটো

দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে সৃষ্ট শূন্য পদে নতুন করে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। আগামী আগস্টে এজন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হতে পারে বলে সূত্র জানিয়েছে। নতুন নীতিমালায় প্রাথমিকে নিয়োগ সম্পন্ন করা হবে। সে মোতাবেক স্নাতক পাস ছাড়া কারোর আবেদনের সুযোগ থাকছে না।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে। জানা গেছে, বর্তমানে প্রধান শিক্ষকের চলতি দায়িত্বে রয়েছেন প্রায় ১৮ হাজার শিক্ষক। তাদের বিষয়টি নিষ্পত্তি হলে নতুন করে ১৮ হাজার পদ শূন্য হবে। সব মিলিয়ে প্রাথমিকে প্রধান শিক্ষক এবং সহকারী শিক্ষকের ৫৪ থেকে ৫৬ হাজার পদ শূন্য হচ্ছে। আগস্টের মধ্যেই এসব পদ খালি হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন সাংবাদিকদেরকে বলেন, ‘২৬ হাজার শূন্য পদে নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রস্তুত করতে প্রাথমিকের মহাপরিচালককে বলা হয়েছে। শিগগিরই নতুন করে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ দেবো।’

জানা গেছে, ২০০৯ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মোট এক লাখ ৯৭ হাজার ৮৬৪ জন শিক্ষক নিয়োগ হয়েছে। মুজিববর্ষে বাকি সব শূন্য পদে নিয়োগ দেওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও করোনার কারণে তা সম্ভব হয়নি। নতুন করে পদ শূন্য হয়েছে প্রায় ২৬ হাজার।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ্ সাংবাদিকদেরকে বলেন, ‘২৬ হাজারের বেশি পদ সৃষ্টি হয়েছে। পামাপাশি আগের শূন্যপদ ১০ থেকে ১২ হাজার। এছাড়া অনেক শিক্ষককে প্রধান শিক্ষকের চলতি দায়িত্ব দিয়েছি। এক মাসের মধ্যে সেগুলো চূড়ান্ত হলে শূন্য পদের সংখ্যা আরও বাড়বে।’

কতটি শূন্য পদে নিয়োগ দেওয়া হবে? এমন প্রশ্নের জবাবে মহাপরিচালক বলেন, ‘বিজ্ঞপ্তিতে কত জন নিয়োগ হবে তা উল্লেখ থাকে না। এ মাসের শেষে বিজ্ঞপ্তি চূড়ান্ত করার চেষ্টা করছি। করোনার কারণে কাজে সমস্যা হচ্ছে। এ মাসে না পারলে পরের মাসে যেতে হবে।’

সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এতে মোট উত্তীর্ণ হন ৫৫ হাজার ২৯৫ জন। আর নিয়োগ দেওয়া হয় ১৮ হাজার ১৪৭ জনকে। এর আগে ২০১৪ সালের স্থগিত পরীক্ষাটিও নেওয়া হয়। ওই পরীক্ষার মাধ্যমে নিয়োগ পান ৯ হাজার ৭৬৭ জন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ