ছুটির পর প্রাথমিক শিক্ষকদের লিখিত আবেদনের বদলি, অনলাইনে এপ্রিলের পর

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পুরনো নিয়মে করা লিখিত আবেদনের বদলি কার্যক্রম শুরু হবে চলমান করোনার  ছুটির পর। আর নতুন পদ্ধতিতে অনলাইনে বদলি কার্যক্রম এপ্রিলের পর থেকে সারা বছরই করা যাবে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডিপিই মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ বলেন, ‘ছুটির পর আমরা শিক্ষক বদলি কার্যক্রম শুরু করবো। আর করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে ছুটি দীর্ঘয়িত না হলে, এপ্রিলের মধ্যেই অনলাইনে বদলির ব্যবস্থা চূড়ান্ত হবে। অনলাইনে বদলি কার্যক্রম শুরু হবে এপ্রিলের পর।’

জানা গেছে, বদলি বাণিজ্যের অভিযোগ আমলে নিয়ে অনলাইনে শিক্ষক বদলির উদ্যোগ নেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে অনলাইনে প্রাথমিক শিক্ষক বদলি কার্যক্রম শুরু করার কথা থাকলেও এখনও তা শুরু করা হয়নি। চলতি বছর অনলাইনে ভর্তির কার্যক্রম শুরু করার জন্য এ বছর ফেব্রুয়ারিতে জরুরি বদলি ছাড়া সহকারী শিক্ষকদের বদলি হয়নি। তবে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রম চালু করা না গেলে মার্চের শেষ সপ্তাহ থেকে লিখিত আবেদনের বদলি কার্যক্রম শুরু করার কথা ছিল। করোনাভাইরাস প্রকোপের কারণে তাও আটকে গেছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ এবং পরে বাড়িয়ে আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পরের দুইদিন ১০ ও ১১ এপ্রিল শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি সরকারি ছুটি হিসেবে গণ্য হয়েছে। ফলে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি থাকবে। এই ছুটি দীর্ঘায়িত না হলে সব ধরনের অফিস কার্যক্রম শুরু হবে ১২ এপ্রিল থেকে। এ সময় শুরু হবে প্রাথমিকের শিক্ষক বদলি কার্যক্রমও।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ