১৮২ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে টিফিন বক্স বিতরণ রাষ্ট্রপতির

রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ প্রাথমিক পর্যায়ে শিক্ষার মান বৃদ্ধির সহায়তাকল্পে স্কুল শিশুদের জন্য চলমান মিডডে মিল কর্মসূচিতে সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে দেশের শিক্ষানুরাগীদের পাশাপাশি ধনাঢ্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি আজ এখানে রাউজান উপজেলার ১৮২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য টিফিন বক্স বিতরণকালে বলেন, ‘আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে, সরকারি উদ্যোগ ছাড়াও যদি বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও সমাজের ধনবান ব্যক্তিরা মিডডে মিল কর্মসূচিতে এগিয়ে আসে তবে তা প্রাথমিক শিক্ষার মান বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে।’

চলমান মিডডে মিল কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাউজান উপজেলার স্কুলসমূহের শিক্ষার্থীদের মাঝে মোট ২২ হাজার ২৬০টি টিফিন বক্স বিতরণ করা হয়। স্থানীয় এমপি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর নেতৃত্বে কয়েকজন সম্মানীয় ব্যক্তি গত তিন বছর ধরে ২০ সহস্রাধিক শিক্ষার্থীর মাঝে প্রতিদিন মিডডে মিল বিতরণ করছেন। প্রাথমিক শিক্ষাকে শিক্ষার মূলভিত্তি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অতএব তাদের যত্ন নেওয়া বিশেষ করে তাদের স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও চিত্তবিনোদন ব্যবস্থা অত্যন্ত জরুরি।’

রাষ্ট্রপ্রধান এই কর্মসূচির উদ্যোগের জন্য স্থানীয় এমপি ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার সময়োপযোগী প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে অগ্রাধিকার প্রদান করছে।

রাষ্ট্রপতি হামিদ বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রাথমিক শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার কাজ শুরু করেন। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এরই ধারাবাহিকতায় ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেন।’ ইতোপূর্বে তাঁর তিনবার রাউজান সফরের কথা স্মরণ করে তিনি এই উপজেলার সার্বিক কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন,‘আমি খুবই সন্তুষ্ট।’

রাষ্ট্রপতি চলমান মিডডে কর্মসূচিতে সহায়তা করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন রেলওয়ে মন্ত্রনালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আব্দুল মান্নান।

স্থানীয় নেতৃবৃন্দ, শিক্ষাবিদ, রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এবং সিনিয়র বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ