১৩ তম গ্রেড মানছেন না সহকারী শিক্ষকরা, ৪ জানুয়ারি থেকে ধর্মঘট

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকদের নতুন গ্রেডে বেতন-ভাতার অনুমোদন দিয়েছে অর্থমন্ত্রণালয়। নতুন গ্রেড অনুযায়ী প্রধান শিক্ষকরা ১১তম গ্রেডে ও সহকারী শিক্ষকরা ১৩তম গ্রেডে বেতন পাবেন। আর সহকারী প্রধান শিক্ষকদের পদ সৃষ্টি হলে তারাও ১২ তম গ্রেডেই বেতন পাবেন। বৃহস্পতিবার গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম আল হোসেনের বরাত দিয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষক নেতারা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দাবি আদায়ে গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল হোসেনের সাথে বৈঠকে বসেন ১১ শিক্ষক নেতা। সভাশেষে শিক্ষক নেতারা সাংবাদিকদের জানান, প্রধান শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড, সহকারী প্রধান শিক্ষকদের ১২তম ও সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতন দেয়ার কথা জানিয়েছেন গণশিক্ষা সচিব । সচিব জানিয়েছেন অর্থ মন্ত্রণালয় প্রধান শিক্ষকদের ১১তম গ্রেড ও সহকারী শিক্ষকদের ১৩তম গ্রেডে বেতনের প্রস্তাব ইতোমধ্যে অনুমোদন দিয়েছে। তবে, সহকারী প্রধান শিক্ষকদের পদ সৃজনের কাজ প্রক্রিয়াধীন। পদসৃজন হলে তাদের ১২ তম গ্রেডে বেতন দেয়া হবে। তবে, ১৩তম গ্রেডে বেতন মানছেন না সহকারী শিক্ষকরা। তারা ১১ তম গ্রেডেই বেতন চান।

সহকারী শিক্ষক মহাজোটের নেতা শাহিনূর আল-আমিন সাংবাদিকদের বলেন, আমরা ১৩ ত গ্রেডে বেতন মানি না। তাই দাবি আদায়ে পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আগামী ২৫ বা ২৬ ডিসেম্বর শিক্ষক মহাসমাবেশের আয়োজন করা হবে।  এরপরও দাবি বাস্তবায়ন না হলে ৪ জানুয়ারি থেকে সব স্কুলে ধর্মঘট পালন করবেন সহকারী শিক্ষকরা। সেদিন থেকে স্কুলগুলোতে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হবে ।

 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ