ঢাকায় মহাসমাবেশের ডাক প্রাথমিক শিক্ষকদের

  © ফাইল ফটো

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের জাতীয় বেতন স্কেলের ১১তম গ্রেডে ও প্রধান শিক্ষকদের ১০ম গ্রেডে বেতন নির্ধারণের দাবিতে শেষ দিনের মত পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করছেন শিক্ষকরা। এখন পর্যন্ত সরকারের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোন সাড়া পাননি তারা। আগামী ২২ অক্টোবরের মধ্যে দাবী বাস্তবায়ন না হলে ২৩ অক্টোবর ঢাকায় মহাসমাবেশের ঘোষণা দেন আন্দোলরত শিক্ষক নেতারা।

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসনে সহকারী শিক্ষকদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন শেষে এ ঘোষণা দেয় তারা।

প্রাথমিক শিক্ষকদের ১৪টি সংগঠন নিয়ে গঠিত মোর্চা ‘বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদ’র ব্যানারে দেশের সকল প্রাথমিক শিক্ষকরা এ কর্মবিরতি পালন করেন।

পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন শেষে প্রাথমিক শিক্ষক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক আনিসুর রহমান বলেন, আমাদের কর্ম বিরতি আজ শেষ দিন। ২২ অক্টোবর পর্যন্ত সময় আছে। আমরা এর মধ্যে দাবী বাস্তবায়ন চাই।

ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব মোহাম্মদ শামছুদ্দীন মাসুদ বলেন, সকল বিদ্যালয়ে কর্ম বিরতি পালনের মাধ্যমে আমরা আমাদের ন্যায্য দাবীর কথা জানিয়ে দিয়েছি। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করছি। প্রধানমন্ত্রীই পারেন আমাদের দাবী দ্রুত বাস্তবায়ন করতে কারণ তাঁর নির্দেশেই সহকারী শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবী নির্বাচনী ইশতেহারে অন্তর্ভূক্ত হয়েছে।

প্রধান উপদেষ্টা আনোয়ারুল ইসলাম তোতা বলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় শিক্ষকদের কর্মসূচি পালনে বাধ্য করেছে। আমরা শিক্ষার্থীদের জিম্মি করতে চাইনা। তাই ২৩ অক্টোবরের আগেই প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা চাই।

প্রধান সমন্বয়ক আতিকুর রহমান বলেন, ২৩ অক্টোবর মহা সমাবেশ থেকে আমরা আরো কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করবো। নীতি নির্ধারণী চেয়ারম্যান আব্দুল্যাহ সরকার বলেন, দাবী বাস্তবায়নে কর্তৃপক্ষ শতভাগ আন্তরিক হোক আমরা এটাই চাই। তা না হলে আসন্ন প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা হুমকির মুখে পড়বে।

প্রধান মুখপাত্র বদরুল আলম বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎয়ের চেষ্টা করছি। সাক্ষাৎয়ের বিষয়ে বিভিন্ন মহলে কথা হচ্ছে।

কর্মবিরতি

এছাড়া কর্মসূচীতে ঐক্য পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক গাজীউল হক, ছিদ্দিকুর রহমান, সাবেরা বেগম, শিবাজী বিশ্বাস, আবদুস সবুর, আবদুল হক, ইউএস খালেদা, আবদুল খালেক, মোজাম্মেল হক ও রোজেল সাজু কর্মবিরতি পালনের জন্য শিক্ষকদের ধন্যবাদ জানান এবং ২৩ অক্টোবর ঢাকায় উপস্থিত হওয়ার আহবান জানান।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ