গাছ থেকে বরই ছিঁড়ে খাওয়ায় স্কুলছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

  © সংগৃহীত

গাজীপুরে গাছ থেকে অরবরই ছিঁড়ে খাওয়াকে কেন্দ্র করে অন্তর চন্দ্র দাস (১২) নামে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মজলিশপুর এলাকা থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত অন্তর চন্দ্র দাস নরসিংদীর স্বপন চন্দ্র দাসের ছেলে। তারা পরিবারসহ মজলিশপুর মাঝিপাড়া এলাকায় থাকত। সে স্থানীয় লাঠিভাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিল। অন্তরের বাবা স্বপন চন্দ্র দাস নদী-বিল থেকে মাছ ধরে বিক্রি ও মাঝে-মধ্যে ট্রাকের চালকের সাহায্যকারী হিসেবেও কাজ করে।

নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন, গত শুক্রবার অন্তরসহ ২-৩ জন শিশু মিলে মজলিশপুর শিলপাড়া ভগমানের টেক এলাকায় একটি বাগানে যায়। সেখানে একটি গাছ থেকে তারা অরবরই ছিঁড়ে খায়। এ সময় এক ব্যক্তি তাদের ধাওয়া করে অন্তরকে আটক করে এবং অন্য দুই শিশু পালিয়ে যায়। এক পর্যায়ে ওই ব্যক্তি অন্তরকে মারধোর করে ছেড়ে দেয়।

পরে অন্তর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছে নেয়া হয়। এরপরও তার অবস্থার উন্নতি না হলে অন্তরকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সন্ধ্যায় অন্তর মারা যায়।

পরে নিহতের স্বজনরা মৃতদেহ মজলিশপুর এলাকায় তাদের বাসায় নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাসা থেকে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ মিজানুর রহমান জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ