প্রাথমিকের শিক্ষিকাকে গলা কেটে হত্যা

চাঁদপুর শহরের ষোলঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকাকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। রোববার বিকেল ৫টায় শহরের ষোলঘর ওয়াবদা কলোনীর জরাজীর্ণ তৃতীয় তলা ভবনে এ ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তরা ওই শিক্ষিকার গলা কেটে হত্যা করেছে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

ওই শিক্ষিকার নাম জয়ন্তী চক্রবর্তী। তার বাড়ি জেলার শাহরাস্তি উপজেলায়। স্বামী অলক গোস্বামীর সঙ্গে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কলোনীতে তিনি থাকতেন। তার ২ ছেলে ও ২ মেয়ে রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিকেল ৫টায় কয়েকজন শিক্ষার্থী জয়ন্তীর কাছে প্রাইভেট পড়তে যায়। সেখানে জয়ন্তীর গলাকাটা মরদেহ দেখে ৯৯৯ কল দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। বর্তমানে ওই শিক্ষিকার স্বামী ঢাকায় রয়েছেন। তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাসিম দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে রাত সাড়ে সাতটায় বলেন, আমরা এখানো ঘটনাস্থলেই আছি। প্রাথমিক তদন্তে আমরা যতটুকু জানতে পেরেছি ওই শিক্ষিকা বাসায় একা ছিলেন। তিনি শনিবার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছ থেকে ছুটি নিয়েছেন। ঘটনার সময় তার বাসায় কেউ ছিলনা। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ