নতুন প্রাথমিক শিক্ষকদের জন্য আবাসন সুবিধার ঘোষণা প্রতিমন্ত্রীর

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন নতুন করে আরও এক হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণের কথা জানিয়েছেন। একইসঙ্গে এসব স্কুলে শিক্ষকদের জন্য আবাসন ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে এ সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, নতুন করে সারাদেশে আরো এক হাজার প্রাথমিক স্কুল নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। একইসঙ্গে এসব স্কুলে শিক্ষকদের জন্য আবাসন ব্যবস্থাও নির্মাণ করা হবে। অপর এক প্রশ্নের জবাবে আর কোনো প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের প্রস্তাব বিবেচনার সুযোগ নেই বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, নতুন করে প্রাথমিক স্কুল জাতীয়করণের সুযোগ নেই।

পড়ুন: শুধু প্রাথমিকে কেন বায়োমেট্রিক— ক্ষোভে ফুঁসছেন শিক্ষকরা

এদিকে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা কমিটির নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ অধিবেশন চলাকলীন এক কথা বলেন।

তিনি বলেন, স্থায়ী কমিটিতে বিষয়টি আলোচনা হয়েছে সত্যি। তবে শিক্ষাগত যোগ্যতা প্রয়োজন নেই এমন কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। প্রাণবন্ত আলোচনা হয়েছে। ম্যানেজিং কমিটি কি হলে আরো ভালো হতে পারে, কিভাবে বিদ্যালয় মান উন্নয়ন করা যায় সেই বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আলোচনা আরো হবে। এক সময় গিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নেব।

সম্প্রতি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও সদস্য নির্বাচনে নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে আলোচনা হয়। কমিটির একটি অংশ চেয়েছিল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকা উচিত। অন্যদিকে আরেকটি অংশ চাচ্ছেন, যেখানে একজন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে শিক্ষা যোগ্যতা লাগে না সেখানে পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণের প্রয়োজন নেই।

পড়ুন: এমপিওভুক্তিতে কত টাকা বাজেট থাকছে?


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ