পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাও করবে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ

পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাও করবে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ
  © টিডিসি ফটো

১৯৭১ সালের গণহত্যা ও ধর্ষণের অপরাধে পাকিস্তানকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। এছাড়া ওই কর্মসূচি থেকে মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ বিরোধী কুখ্যাত খাজা নাজিমুদ্দিন, ইস্কান্দার মির্জা ও আইয়ুব খানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক দেয়া ডক্টর অব লজ ডিগ্রী বাতিলের দাবিও জানানো হয়।

আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে কর্মসূচির সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আল মামুন। এসময় বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি চেখ ইমরান, মাকসুদ হাওলাদার, চকবাজার থানা শাখার সভাপতি আশরাফ হোসেন স্বাধীন, গাজীপুর মহানগর শাখার সভাপতি আদনান নাসিম প্রমুখ।

সমাবেশে সনেট মাহমুদ বলেন, ১৯৭১ সালের গণহত্যা ও ধর্ষণের অপরাধে পাকিস্তানকে বাংলাদেশের কাছে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিঃস্বার্থ ক্ষমা চাইতে হবে। ৩০ লাখ শহীদ ও ৪ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতার লাল-সবুজের পতাকা আবারও খামচে ধরতে চায় একাত্তরের পরাজিত শক্তির দোসররা। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে এরা প্রতিনিয়ত ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। শোকাবহ আগস্ট মাস আসলেই পাকিস্তানী দোসররা মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার চেষ্টা করে এবং গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। ক্ষমা না চাইলে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের মানুষদের নিয়ে পাকিস্তানি দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি পালন করবে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

আল মামুন বলেন, কুখ্যাত খাজা নাজিমুদ্দিন, ইস্কান্দার মির্জা, আইয়ুব খান সবসময় বাঙালি জাতীয়তাবাদ বিরোধী হিসেবে পূর্ব পাকিস্তানের মানুষের ওপর শোষণ-নির্যাতন-নিপীড়ন চালিয়েছেন। মহান মুক্তিযুদ্ধের সূতিকাগার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান সূচক ডিগ্রী প্রদান তালিকায় কখনোই এসব কুখ্যাত ব্যক্তিদের নাম থাকতে পারে না। যাদের শোষণ-নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আজীবন সংগ্রাম করেছেন তাদের নামের পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম থাকতে পারে না। বঙ্গবন্ধু কে সম্মান জানানোর আগে সিন্ডিকেট সভায় অবশ্যই এই তিনজন কুখ্যাত ব্যক্তির ডক্টর অব লজ ডিগ্রী বাতিল করতে হবে। অন্যথায় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে। দাবি আদায় না হলে প্রয়োজনে অনশন কর্মসূচি পালন করবে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ