টাইমস্কেল সংক্রান্ত লাইভ ভিডিও ফুটেজ ও কিছু কথা

টাইমস্কেল সংক্রান্ত লাইভ ভিডিও ফুটেজ ও কিছু কথা
  © সংগৃহীত

গতকাল আমি আমাদের এক প্রধান শিক্ষক ভাইকে দেখলাম তিনি লাইভ ভিডিও বার্তায় বক্তব্য দিচ্ছেন যে, প্রধান শিক্ষকদের টাইমস্কেল এ মাসেই হয়ে যাচ্ছে। টাইমস্কেল প্রাপ্তি শেষ পর্যায় আছে এবং ওনাদের নেতা আগামী রবিবার অর্থমন্ত্রণালয়ে দেখা করতে যাচ্ছেন। অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই টাইমস্কেল আমরা পেয়ে যাচ্ছি। আমরাও তো তাই চাই।

কিন্তু এখানে আমার প্রশ্ন হলো ওনারা কোন তথ্যের উপর ভিত্তি করে বললেন যে, টাইমস্কেল পাওয়ার শেষ পর্যায়ে আছে? তাই যদি হয় তাহলে আমরা গত ৬ সেপ্টেম্বর তারিখের সাবেক মহাপরিচালক ফসিউল্লাহ স্যারের চিঠিতে কি দেখতে পাচ্ছি?

আমাদের ওই সকল প্রধান শিক্ষক ভাইদের কথার সাথে কাজের কোনই মিল নেই। নিজেদের জাহির করার জন্য যখন যা মনে আসে তাই বলতে থাকে। ওনাদের এসব বলার উদ্দেশ্য কিন্তু আমরা সবাই বুঝি। এতে শিক্ষকদের মনে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।

এসব কারণে প্রধান শিক্ষকদের টাইমস্কেল প্রাপ্তিতে জটিলতা দেখা দিচ্ছে এবং আমরা দিন দিন পিছিয়ে পড়ছি। যারা টাইমস্কেল নিয়ে কাজ করছে তারাও আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন। কাজ করছেন একজন আর ক্রেডিট নিচ্ছে অন্য জন।

আমার কথায় কেউ ভূল বুঝবেন না। যা আমার কাছে সঠিক বলে মনে হয়েছে, তাই আমি আপনাদের সমুখে তুলে ধরলাম মাত্র। তার পরও বলছি, আমার লেখায় ভুল হলে, আপনারা আমাকে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।

আমাদের সমিতির পক্ষ থেকে লিখিত কিছু প্রস্তাবনা ও কিছু চিঠি নিয়ে আজ আমরা টাইমস্কেল, বিভাগীয় পদোন্নতি, সহকারী শিক্ষক ও পদোন্নতিপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকদের বেতন বৈষম্য, ১০ম গ্রেড ও অন্যান্য সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং অর্থমন্ত্রণালয়ে দেখা করতে যাচ্ছি। আপনারা আমাদের জন্য দোয়া করবেন যেন ভালো সংবাদ দিতে পারি।

লেখক: সভাপতি, বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি

(ফেসবুক থেকে নেওয়া)


মন্তব্য