সেপটিক ট্যাংকে নেমে শিক্ষকসহ তিনজনের মৃত্যু

  © সংগৃহীত

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় সেপটিক ট্যাংকে নেমে এক শিক্ষকসহ তিন জন মারা গেছেন। আজ শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে পুঁইজালা গ্রামের জগদীশ সানার বাড়িতে তারা মারা যান বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের পুঁইজালা গ্রামের লক্ষ্মীকান্ত সানার ছেলে পুঁইজালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জগদীশ সানা (৫৬), একই গ্রামের পরিমল সানার ছেলে তপন কুমার (৪০) ও সোনা দাসের ছেলে মদন দাস (৩০)। 

জগদীশের ছেলে চন্দন সানা বলেন, তাদের বাড়ির সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কার করছিলেন মদন দাস। অনেকক্ষণ তার কোনো সাড়া না পাওয়ায় জগদীশ ট্যাংকের ভেতরে দেখতে যান। এরপর জগদীশের সাড়া না পাওয়ায় তার চাচাত ভাই তপন দেখতে যান। তারও কোনো সাড়া না পাওয়ায় আতঙ্ক ছড়ায়।

পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তিনজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক হিসাম আল কবির বলেন, ট্যাংকের ভেতর অক্সিজেন কম থাকায় তারা নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে মারা গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় একে বলে এসফেকশিয়া। হাসপাতালে আনার পর তিনজনকেই মৃত পাওয়া গেছে বলে তিনি জানান।


মন্তব্য