বৌভাত থে‌কে ফেরার প‌থে নৌকাডু‌বি, ক‌নের বাবাসহ ৪ জনের মৃত্যু

বৌভাত থে‌কে ফেরার প‌থে নৌকাডু‌বি, ক‌নের বাবাসহ ৪ জনের মৃত্যু

কুড়িগ্রামের উলিপুরে মেয়ের শ্বশুরবাড়ি থেকে দাওয়াত খেয়ে ফেরার পথে ধরলা নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে লাশগুলো উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের রংপুরের ডুবুরি দল।

উদ্ধারকৃতরা হলেন- উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের যমুনা রায়পাড়া গ্রামের কনের বাবা নুরু (৫৫), কেরামত উল্লার ছেলে নুর ইসলাম (৫৭), তৈয়ব আলীর স্ত্রী আমেনা বেগম (৫২) ও কামরুজ্জামান (৫৮)।

উলিপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ইনচার্জ নাজমুল হাসান জানান, নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ চারজনের লাশই উদ্ধার করা হয়েছে। এজন্য উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, নিখোঁজ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এর আগে গতকাল বুধবার বিকেলে উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ধরলা নদীতে এ ঘটনা ঘটেছে। এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঈদের পরদিন যমুনা রায়পাড়া গ্রামের নুরুর মেয়ে নাজমা খাতুনের (১৮) সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ধরলা নদী বিচ্ছিন্ন দেলদারগঞ্জ পূর্ব সাতভিটা নামার চর এলাকার আব্দুল হাই-এর ছেলে আলমগীর হোসেনের (২২) বিয়ে হয়। গতকাল বুধবার দুপুরে বউভাতের দাওয়াত খেতে প্রায় ৫০ লোক জন লোক নিয়ে মেয়ের শ্বশুরবাড়ি যান নুরু।

কিন্তু দাওয়াত খেয়ে ফেরার পথে বিকেল ৪টার দিকে ধরলা নদীতে ঝড়-বৃষ্টি শুরু হলে লোকজন পলিথিন মাথার উপর দেওয়ার সময় নৌকাটি ডুবে যায়। এ সময় নৌকায় থাকা অন্য লোকজন সাঁতার দিয়ে কিনারায় আসলেও কনের বাবা নুরুসহ চারজন নিখোঁজ হন। আজ ১২টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের রংপুরের ডুবুরি দল।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ