২০ মে ২০২০, ১৮:১৬

ঘূর্ণিঝড় আম্পানে দেশে প্রথম মৃত্যু

  © বিবিসি

ঘূর্ণিঝড় আম্পানে দেশে প্রথমবারের মতো একজনের মৃত্যু হয়েছে। পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলায় ওই ব্যক্তি মারা গেছেন। ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি দলের সদস্য ছিলেন তিনি।

জানা গেছে, একটি খাল দিয়ে যাওয়ার সময় দমকা হাওয়ায় তাকেসহ অন্যদের বহনকারী নৌকাটি দুলতে থাকে। এতে তিনি পানিতে পড়ে যান। পরে গামবুট ও গায়ে ভারি পোশাক থাকার কারণে আর উঠতে পারেননি। তার বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

এদিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে উপকূলীয় এলাকা প্রায় ২৪ লাখ লোক আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে এবং উপকূলীয় জেলাগুলোতে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

পড়ুন: ভয়ঙ্কর শক্তি নিয়ে স্থলভাগে আম্পানের আঘাত, সুন্দরবনে তান্ডব (ভিডিও)

চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে জারি করা হয়েছে নয় নম্বর বিপদ সংকেত। ঘূর্ণিঝড় আম্পান বাংলাদেশ থেকে সাড়ে তিনশ’ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। এর গতি এখন ঘণ্টায় ২০০ থেকে ২২০ কিলোমিটার।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, বাংলাদেশে যখন আঘাত হানবে তখন আম্পানের গতি থাকতে পারে ঘণ্টায় ১৪০ থেকে ১৬০ কিলোমিটার। আজ বিকেলে বা সন্ধ্যার দিকে এটি সুন্দরবন এলাকায় আঘাত হানবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।