সবাইকে ছাড়িয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড গড়ল যুক্তরাষ্ট্র

  © সংগৃহীত

মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্র এখন সবার উপরে। বিশ্বের যে কোনো দেশের চেয়ে বেশি করোনা রোগী এখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশে। খবর আলজাজিরা ও রয়টার্সের।

যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এখন ‘করোনাভাইরাস পজেটিভ’ রোগীর সংখ্যা ৮৫ হাজার ৬৫৩ জন।

আক্রান্তের সংখ্যা দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যে করোনার সূতিকাগার চীন এবং প্রাদুর্ভাবের নতুন আতুরঘর ইতালিকেও ছাড়িয়ে গেছে।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যানুযায়ী, চীনে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ৭৮২ জন। আর ইতালিতে ৮০ হাজার ৫৮৯ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

গতবছরের শেষ দিকে চীনের উহান থেকে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছিল। এরপর এই ভাইরাস বিশ্বের ২০০ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে। এ পর্যন্ত ৫ লাখ লোক মারা গেছেন করোনাভাইরাসে। মারা গেছেন ২৩ হাজারেরও বেশি মানুষ।

মার্চের মাঝামাঝি সময়ে পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ইউরোপকে করোনাভাইরাসকেজ বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করে।

করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে মানুষ মারা গেছে ইতালিতে, দেশটিতে ৮২১৫ জন মারা গেছেন। এরপর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৩৬৫ জন মারা গেছেন স্পেনে। চীনে মারা গেছেন ৩২৯১ জন। ইরানে মৃত্যু হয়েছে ২২৩৪ জনের। ফ্রান্সে মারা গেছেন ১৬৯৮ জন। আর যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ১২৯০ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৭১ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১৯৮ জন।

 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ