করোনা প্রতিরোধে শিক্ষার্থীদের অভিনব উদ্যোগ

  © টিডিসি ফটো

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নেত্রকোনার একদল শিক্ষার্থী সাধারণ মানুষদের সচেতন করতে চষে বেড়াচ্ছেন এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রাম। তারই অংশ হিসেবে সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের মানুষদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক। শুধু তাই নয় এই এলাকার প্রার্থনার স্থানগুলোতে রাখা হয়েছে সাবানও।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহবায়ক হাসান আল মামুনের উদ্যোগে বিভিন্ন স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া প্রায় ১০০ জন শিক্ষার্থী পাঁচটি দলে ভাগ হয়ে এলাকার সাধারণ মানুষদের সচেতন করছেন এবং করোানা প্রতিরোধের উপকরণ বিতরণ করছেন। এ কাজে সহযোগিতা করছেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ ফকির।

জানতে চাইলে হাসান আল মামুন বলেন, করোনা প্রতিরোধে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতন বৃদ্ধি করতেই আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা এই উদ্যোগ নিয়েছি। কেননা গ্রামের মানুষ তেমন সচেতন না। মসজিদ, মন্দির এবং বাজার গুলোতে লোক সমাগম বেশি থাকে, সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার অভ্যাস তৈরি করতে আমরা গ্রামে গ্রামে কাজ করে যাবো। রাষ্ট্রের কল্যাণে, যে কোনো প্রয়োজনে আমরা কাজ করবো।

করোনা প্রতিরোধে কী ধরণের উদ্যোগ নিয়েছে জানতে চাইলে মামুন বলেন, প্রতিটি মসজিদে ওজু করার জায়গায় হাত ধোয়ার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ সাবান দেওয়া হয়েছে। ওজু করার পূর্বে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিন’ এমন লিখা ব্যানার টানিয়ে দেওয়া হয়েছে। ইউনিয়নের ৪৭টি মসজিদ এবং ৩টি মন্দিরে সাবান এবং ফেস্টুন দেওয়া হয়েছে। জনবহুল স্থান, যেমন-বাজার কিংবা মার্কেটে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে কী কী করণীয় এমন লেখা বিল বোর্ড লাগানো হয়েছে। প্রতিটি বাজারে হ্যান্ডবিল বিলি করা হয়েছে। প্রতিটি গ্রামে মাইকিং করা হয়েছে। বিনামূল্যে মাস্ক এবং হ্যান্ডগ্লাভস দেওয়া হয়েছে।প্রবাসী কেউ এই মূহুর্তে গ্রামে আসছেন কি না খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ