১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৯:৪৫

ভালো থাকতে সিঙ্গেলদের প্রেম করার আহবান ‘প্রেম সফল সংঘের’

(বাঁ থেকে) প্রেম সফল সংঘ ও প্রেম বঞ্চিত সংঘের বিক্ষোভ  © টিডিসি ফটো

ভালো থাকতে সিঙ্গেলদের প্রেম করার আহবান জানিয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) প্রেম সফল সংঘের সদস্যরা। আজ শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে ক্যাম্পাসে প্রেম বঞ্চিতদের বিক্ষোভ মিছিলের প্রতিবাদে প্রেম সফল সংঘের ডাকা কর্মসূচীতে অংশ নিয়ে তারা এ আহবান জানিয়েছেন। তবে সিঙ্গেলরা বলছেন, পুঁজিবাদী প্রেমের সংস্কৃতির বিরুদ্ধে তাদের অবস্থান।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রেম সফল সংঘের সভাপতি তন্ময় হাফিজ বলেন, প্রেম সফল এমন একটি সংঘ যারা রিলেশন আছে তাদের আমরা সাধুবাদ জানাই। যারা সিঙ্গেল আছে তাদের যেন প্রেম হয় সে জন্যেও আমরা কাজ করছি। তবে হ্যাঁ প্রেম হতে হবে খাটি। একজন একাধিক সম্পর্কে থাকতে পারবে না। একাধিক সম্পর্কের প্রেম-ভালোবাসা আমরা সমর্থন করি না।

তিনি বলেন, আমরা প্রত্যেকে প্রেমিক-প্রেমিকাদের যেকোনো সমস্যায় সব সময় পাশে থাকি। আজকের দিনে আমরা প্রত্যেক কাপলদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি এবং একটা করে গোলাপ ফুল দিয়ে অনুপ্রাণিত করে করেছি।

প্রেম সফল সংঘের সদস্য রাব্বি হাসান বলেন, প্রেম সফল সংঘ যারা প্রেমে ব্যর্থ তারা তাদেরও পাশে দাঁড়ায়। যারা সম্পর্ক নিয়ে হতাশায় ভোগে তাদের দুশ্চিন্তা কাটিয়ে উঠাতে সহায়তা করে। আমাদের প্রেম হবে পবিত্রতা বজায় রেখে। সংগঠনকে গতিশীল করে তোলা হবে। ভালোবাসা হোক পবিত্র বন্ধন, এই মর্মে কাজ করে যাচ্ছি। এসময় সবাইকে ভালো থাকতে সিঙ্গেল না থেকে পবিত্র প্রেমের সম্পর্কে জাড়ানোর আহবান জানান বক্তারা।

‘নিজে প্রেম করুন, অপরকে উৎসাহ দিন। প্রেম শান্তি প্রেমেই সুখ, দূর করিবে সকল দুঃখ’ প্রেম সফল সঙ্গের মূলনীতি।

১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালবাসা দিবস সবার কাছে পরিচিত। এই ভালোবাসা দিবস যুগলদের মনের উচ্ছ্বাসকে বাড়িয়ে দেয় কয়েকগুণ। তবে ব্যতিক্রম প্রেম বঞ্চিতদের ক্ষেত্রে। ইবি প্রেম বঞ্চিত সংঘের সদস্যরা দেশের বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের অনুসরণে বিশ্ব ভালবাসা দিবসে বিক্ষোভ মিছিল করে দিবসটি উদযাপন করেছে। আজ বিকেল ৪টার দিকে ডায়না চত্বর থেকে তাদের কর্মসূচী শুরু হয়।

এসময় মিছিলে ‘সব সিঙ্গেল এক হও লড়াই কর’ ‘কাপলদের আস্তানা, ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও’ ‘অ্যাকশন অ্যাকশন কাপলদের বিরুদ্ধে ডাইরেক অ্যাকশন’ এমন বিভিন্ন স্লোগান দিতে দেখা যায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেম বঞ্চিত সংঘের নবনির্বাচিত সভাপতি স্বাগর বিশ্বাস ও সাধারণ সম্পাদক সমার দেওয়ানের নেতৃত্বে এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক শতাধিক প্রেম বঞ্চিত শিক্ষার্থী মিছিলে অংশ নেন।

বাংলাদেশ সিঙ্গেল সংগ্রাম পরিষদের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মাহিন জানিয়েছেন, পবিত্র ভালোবাসার বিরুদ্ধে আমাদের কোন প্রতিক্রিয়া নেই। ভালোবাসা জীবনের একটা অংশ। তবে প্রেমের নামে অশ্লীলতার বিরুদ্ধে ও পুঁজিবাদী প্রেমের সংস্কৃতির বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান। আমরা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসগুলোকে পবিত্র রাখতে চাই। প্রেমের নামে কাউকে ক্যাম্পাসগুলোতে অশ্লীলতা ছড়ানোর কোন সুযোগ দেওয়া হবে না।

এদিকে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজ ক্যাম্পাসে প্রেম বঞ্চিত সংঘের কর্মসূচী হলেও পুলিশি বাধায় বেশকিছু কর্মসূচী বন্ধ দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে এসব ঘটনায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।