আত্মহত্যার অনুকরণ করায় প্রাণ গেল দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রের

প্রতীকি ছবি  © সংগৃহীত

গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যাকারী এক যুবকের মরদেহ দেখে আসার পর ফাঁসের অনুকরণ করতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছে এক শিশু। গতকাল শুক্রবার বগুড়ার গাবতলী উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের জামির বাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ওই শিশুর নাম রব্বানী (৮)। সে জামির বাড়িয়া গ্রামের আব্দুল মোমিনের ছেলে। রব্বানী দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ত।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোনারায় ইউনিয়নের খুপি উত্তরপাড়া গ্রামের এবাদুল হক মন্ডলের একমাত্র ছেলে মামুনুর রশিদ (২৩) প্রেমঘটিত কারণে গত বৃহস্পতিবার রাতে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। শুক্রবার সকালে এলাকায় জানাজানি হলে পার্শ্ববর্তী জামির বাড়িয়া গ্রামের আব্দুল মোমিনের ছেলে রব্বানীসহ তার নানার বাড়ির আরও কয়েকজন মামুনুর রশিদের লাশ দেখে আসে।

“সন্ধ্যার পর রব্বানী নানার বাড়ির আঙ্গিনায় চেয়ারের উপর দাঁড়িয়ে কাপড় শুকানোর খুঁটিতে গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যার অনুকরণ করতে গেলে ফাঁস লেগে যায়; এতে তার মৃত্যু হয়।”

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাবের রেজা আহম্মেদ জানান, ময়নাতদন্তের পর শনিবার করেছে পরিবারের লোকজন বাড়িতে লাশ এনে দাফন করেছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ